মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ৯:২৯ এএম

তিন বছরেও ময়মনসিংহে শিশু হাসপাতাল স্থাপন প্রকল্প দৃশ্যমান হয়নি

বাবলী আকন্দ:
প্রকাশিত: ১১:১৯ অপরাহ্ন, ১৬ অক্টোবর ২০২০, শুক্রবার


তিন বছরেও ময়মনসিংহে শিশু হাসপাতাল স্থাপন প্রকল্প দৃশ্যমান হয়নি

গত তিন বছরেও ময়মনসিংহে শিশু হাসপাতাল স্থাপন প্রকল্প দৃশ্যমান হয়নি। বিভাগীয় শহর ময়মনসিংহ। এ বিভাগকে ঘিরে বিভিন্ন কারণে সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন পরিকল্পনা বাস্তবায়িত হয়নি। ঠিক এ চিন্তা থেকেই সমাজের সচেতন মানুষ উদ্বিগ্ন।

১০০ শয্যা দিয়ে শিশু হাসপাতাল স্থাপন প্রকল্পে ২০১৭ সালের মার্চে ৩০ কোটি টাকা বরাদ্দ দেয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। যার কাজ শেষ হওয়ার কথা চলতি বছরের জুন মাসে। কিন্তু জুন মাস শেষ হয়ে গেলেও এখন পর্যন্ত এর কোন অগ্রগতি সম্পর্কে কেউই অবগত নয়। এ সুযোগ থেকে ময়মনসিংহবাসী যাতে বঞ্চিত না হয় সেজন্য সচেতন মানুষের কয়েকজন গতকাল ময়মনসিংহ জেলা প্রশাসক মোঃ মিজানুর রহমান এর নিকট স্মারকলিপি প্রদান করেন।

এসময় জেলা প্রশাসক চাপা ক্ষোভ প্রকাশ করেন নেতৃবৃন্দের উপর।

তিনি বলেন, না জেনে এ বিষয়গুলো কেন তুলে ধরেন?এ ব্যাপারে পরিচালক (স্বাস্থ্য) এর কাছে সকল তথ্য পাবেন। তিনি আরো জানান, শিশু হাসপাতালের জন্য ভূমি বরাদ্দের বিষয়টি নিয়ে উদ্বিগ্ন হওয়ার কিছু নেই। ছত্রপুর মৌজায় ৩ একর ভূমি চিহ্নিত করে অনুমোদনের জন্য মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন আসলেই বাকী প্রক্রিয়া শুরু হবে। কবে অনুমোদন আসবে এবং তৎসংক্রান্তে বাকী অগ্রগতি সম্বন্ধে বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালকের কার্যালয় থেকে বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যাবে। এ সম্পর্কে জানতে চাইলে জেলা জাসদের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. নজরুল ইসলাম চুন্নু জানান, বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক আমাদেরকে টেলিফোনে বলেছেন, তিনি মাত্র কয়েকদিন আগে যোগদান করেছেন। ফাইল দেখে পরে বিস্তারিত অগ্রগতি জানাতে পারবেন। তিনি আরো বলেন,বিষয়টি উদ্বেগের কারণ এ জন্যই যে বিগত তিন বছরে উক্ত প্রকল্পের কোন দৃশ্যমান কার্যক্রম নাগরিকদের দৃষ্টিগোচরে আসেনি। বিমান বন্দর, বিভাগীয় শহর প্রকল্পের নেতিবাচক অভিজ্ঞতা ময়মনসিংহের নাগরিকদের উদ্বিগ্ন হওয়া থেকে বিরত রাখতে পারছে না।

স্মারকলিপি প্রদান করেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল, জেলা সিপিবির সভাপতি অ্যাড. এমদাদুল হক মিল্লাত এবং জেলা জাসদের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. নজরুল ইসলাম চুন্নু। এ সময় উপস্হিত ছিলেন চেম্বার অব কমার্সের সহ-সভাপতি শংকর সাহা, সাংবাদিক নিয়ামুল কবীর সজল, বাবলি আকন্দ, সমাজকর্মী শামীম আশরাফ। নেতৃবৃন্দ শিশু হাসপাতালের কার্যক্রম দৃশ্যমান করে নাগরিকদের নিরুদ্বিগ্ন করার ব্যবস্হা গ্রহণে জেলা প্রশাসককে অনুরোধ করেন।

মন্তব্য করুন

সর্বশেষ নিউজ

আরো পড়ুন