বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ৬:৫২ পিএম

পঞ্চগড়ে আরো ৩ জনের দেহে করোনা সনাক্ত 

আবু সালেহ মো রায়হান, পঞ্চগড় প্রতিনিধি:
প্রকাশিত: ১০:০৫ অপরাহ্ন, ১৮ জুন ২০২০, বৃহস্পতিবার


পঞ্চগড়ে আরো ৩ জনের দেহে করোনা সনাক্ত 

প্রতীকী ছবি

পঞ্চগড়ে এক পল্লী চিকিৎসক ও মুক্তিযোদ্ধা এবং ঢাকা ফেরত এক গার্মেন্টস কর্মী সহ ৩ জনের দেহে করোনা সনাক্ত হয়েছে।আক্রান্তদের মধ্যে ২ জন সদর উপজেলার ও একজন বোদা উপজেলার। আক্রান্ত ৩ জনই পুরুষ। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১১৮ জনে। বৃহস্পতিবার রাতে আক্রান্তের বিষয়টি নিশ্চিত করেন সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ ফজলুর রহমান।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের সূত্রে জানা যায়, সদর উপজেলার আক্রান্ত ২ জনের মধ্যে একজনের বাড়ি পঞ্চগড় পৌর এলাকার কামাত পাড়া এলাকায়। তিনি একজন পল্লী চিকিৎসক। তার বয়স ৬০ বছর। গত কিছুদিন ধরে তিনি জ্বর,শ্বাসকষ্ট ও সর্দিতে ভূগছিলেন।পরে তার নমুনা সংগ্রহ করে উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। বর্তমানে তিনি হোম আইসোলেশনে আছেন বলে জানিয়েছে উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ।

এ উপজেলার আক্রান্ত আরেকজনের বাড়ি সদর ইউনিয়নের মৌলভী পাড়া গ্রামে। তিনি একজন মুক্তিযোদ্ধা । তার বয়স ৭৫ বছর। গত ১৪ জুন তিনি জ্বর,সর্দি,শ্বাসকষ্ট সহ করোনার উপস্বর্গ নিয়ে মারা যান। তিনি সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ছিলেন। তার এ্যাজমা জনিত কারণে প্রায়ঃশ শ্বাসকষ্ট হচ্ছিল।পরে তার শারিরিক অবস্থার অবনতি হলে রংপুর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে নেয়া হয়।পরে সেদিন রাতেই তার মৃত্যু হয়। মৃত্যুর পরে তার শরীর হতে নমুনা সংগ্রহ করে পঞ্চগড় সদর উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ।

বোদা উপজেলার আক্রান্ত একজনের বাড়ি ঝলই শালশিলি ইউনিয়নের কামার পাড়া গ্রামে। তার বয়স ২৬ বছর। তিনি একজন পুরুষ। গত ১০ জুন ঢাকা হতে নিজ গ্রামের বাড়িতে ফিরলে তাকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে বলেছে উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। তিনি ঢাকায় একটি গার্মেন্টসে কর্মী হিসেবে কাজ করতেন।

গত ১৩ জুন তাদের নমুনা সংগ্রহ করে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে পাঠানোর পর ১৮ জুন তাদের করোনা পজেটিভ এসেছে। বর্তমানে তারা নিজ বাড়িতে হোম আইসোলেশনে আছে এবং বর্তমানে তাদের করোনার উপসর্গ না থাকায় সুস্থ আছে বলে জানা গেছে।

সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ ফজলুর রহমান জানান, এ পর্যন্ত ১৯১৪ জনের নমুনা সংগ্রহ করার পর ১৮২৮ জনের রিপোর্ট এসেছে তার মধ্যে ১১৮ জনের করোনা পজেটিভ এসেছে। জেলার ১১৮ জন আক্রান্তের মধ্যে তেঁতুলিয়ায় ১৩ জন,সদরে ৩৬ জন,আটোয়ারীতে ০৯ জন,বোদায় ১০ জন এবং দেবীগঞ্জে ৪৭ জন। ইতিমধ্যে তেঁতুলিয়ায় ০৭ জন, সদরে ১৮ জন,আটোয়ারীতে ০৫ জন,বোদায় ০৭ জন ও দেবীগঞ্জ উপজেলায় ৩৪ জন সহ মোট ৭০ জন করোনা থেকে সুস্থ হয়ে ছাড়পত্র পেয়েছেন এবং দুই জন করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু বরণ করেছেন। তাদের মধ্যে বোদা উপজেলার একজন ও দেবীগঞ্জ উপজেলার একজন।
এদিকে করোনার উপসর্গে তেঁতুলিয়ায় ৫০ বছর বয়সী এক নারী, সদরে ৭৫ বছর বয়সী এক মুক্তিযোদ্ধা ও ২২ বছর বয়সী এক যুবক,বোদায় ১৬ বছর বয়সী এক কিশোর ও দেবীগঞ্জে ১৩ বছর বয়সী এক কিশোরী মারা গেছে।

মন্তব্য করুন

সর্বশেষ নিউজ

আরো পড়ুন