বুধবার, ২৭ মে ২০২০, ৯:৪০ এএম

এবার শিক্ষার্থীদের মোবাইলে যাবে ফলাফল

প্রতিদিনের কাগজ ডেস্ক:
প্রকাশিত: ১:১৩ অপরাহ্ন, ১৯ মে ২০২০, মঙ্গলবার


এবার শিক্ষার্থীদের মোবাইলে যাবে ফলাফল

ফাইল ছবি ।

চলতি বছরের মাধ্যমিক ও সমমানের পরীক্ষার ফলাফল প্রস্তুত করেছে আন্তঃশিক্ষাবোর্ড। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সম্মতি পেলে আগামী ২২ মে’র পর যেকোনো দিন ফলাফল প্রকাশ করা হতে পারে। এবার ফলাফল সরাসরি পরীক্ষার্থীদের মোবাইলে পাঠানো হবে। শিক্ষাবোর্ড সূত্র এসব তথ্য নিশ্চিত করেছে।

সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা বলেছেন, গত ৯ বছর ধরে পরীক্ষা শেষ হওয়ার ৬০ দিনের মধ্যে পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করা হতো। কিন্তু এবার করোনা সংক্রমণের কারণে তা সম্ভব হয়নি। তবু পরীক্ষার্থীদের স্বার্থ বিবেচনা করে বিকল্প পদ্ধতিতে পরীক্ষকদের কাছ থেকে মূল্যায়িত উত্তরপত্র, ওএমআর শিট সংগ্রহ করে বোর্ডগুলো।

জানতে চাইলে আন্তঃশিক্ষাবোর্ডের সমন্বয়ক ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক জিয়াউল হক ভোরের কাগজকে বলেন, ফলাফল প্রকাশের জন্য আমরা প্রস্তুত। প্রধানমন্ত্রীর সম্মতি পেলে ২২ মে’র পর যেকোনোদিন ফলাফল প্রকাশ করতে পারব।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, পাবলিক পরীক্ষার ফলাফল প্রথমে প্রধানমন্ত্রী প্রকাশ করেন। সেই হিসেবে ফলাফল প্রস্তুতের পর একটি সময় দিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সম্মতি পাওয়ার জন্য আন্তঃশিক্ষাবোর্ড শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে চিঠি পাঠায়। শিক্ষা মন্ত্রণালয় সেই চিঠি প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরে পাঠিয়ে দেয়। চিঠি পাওয়ার পর প্রধানমন্ত্রী যে দিন নির্ধারণ করে দেন সেদিনই ফলাফল প্রকাশ করা হয়।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্র বলছে, ফলাফল প্রকাশে প্রধানমন্ত্রীর সম্মতি পাওয়ার জন্য চিঠিটি তার দপ্তরে পাঠানো হয়েছে।

বোর্ড সংশ্লিষ্টরা বলেছেন, এবার ফলাফল প্রকাশে নতুনত্ব আনা হয়েছে। অন্যবার পরীক্ষার্থীরা নিজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কিংবা মোবাইল মেসেজ অথবা ইন্টারনেটে গিয়ে ফলাফল জানতে পারতেন। এবার এসবের পাশাপাশি পরীক্ষার্থীর মোবাইলে সরাসরি ফলাফল পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে।

মোবাইলে সরাসরি ফলাফল পেতে চাইলে পরীক্ষার্থীকে তার মোবাইলের মেসেজ অপশনে গিয়ে রোল নম্বর, বোর্ডের নাম এবং পরীক্ষার বছর উল্লেখ করে প্রি রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। এই রেজিস্ট্রেশন পদ্ধতি কীভাবে হবে তা শিগগিরই মোবাইল ফোন কোম্পানিগুলো মেসেজ দিয়ে জানিয়ে দেবে।

পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশে এই নতুনত্ব নিয়ে এসেছেন ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের সিনিয়র সিস্টেম এনালিস্ট প্রকৌশলী মনজুরুল কবীর।

পুরো বিষয়টি জানতে চাইলে প্রকৌশলী মনজুরুল কবীর ভোরের কাগজকে বলেন, ডিজিটাল বাংলাদের অগ্রগতির ফসল হচ্ছে ফলাফল প্রকাশের এই নতুন পদ্ধিত। একজন পরীক্ষার্থী প্রিরেজিস্ট্রেশন করার পর তার রোল নম্বর ও বোর্ডের নাম আমাদের কাছে সংরক্ষিত হয়ে যাবে।

এর ফলে যেদিন ফলাফল প্রকাশ হবে সেদিনই সঙ্গে সঙ্গে পরীক্ষার্থীর মোবাইলে তার ফলাফল পাঠিয়ে দেয়া হবে। এরফলে এই করোনার সময়ে পরীক্ষার্থীকে ঘর থেকে বেরিয়ে ফলাফল জানতে হবে না। ঘরে বসেই ফলাফল জানা যাবে। এতে করোনার সংক্রমনও ঠেকানো যাবে বলে তিনি মনে করেন।

শিক্ষাবোর্ডগুলোর পরিসংখ্যানে বলা হয়েছে, চলতি বছরের মাধ্যমিক ও সমমানের পরীক্ষায় সব বোর্ডের অধীনে সাড়ে ৩ হাজার পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রায় ২৯ হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে ২০ লাখ ৫০ হাজার পরীক্ষার্থী অংশ নিয়েছে।

মন্তব্য করুন

খবর অনুসন্ধান

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১

সর্বশেষ নিউজ

আরো পড়ুন

Shares