সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২:১২ পিএম

ইফতারে যে কারণে ছোলা খাবেন

অনলাইন ডেস্ক :
প্রকাশিত: ১২:২৭ অপরাহ্ন, ২৮ এপ্রিল ২০২০, মঙ্গলবার


ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

ইফতারে খাবারের তালিকায় আর কিছু থাক বা না থাক, ছোলা আর খেজুর কিন্তু থাকবেই। রমজান মাসজুড়েই সবাই ইফতারে কমবেশি ছোলা খেয়ে থাকেন।

কখনো কি ভেবেছেন, ছোলার পুষ্টিগুণ সম্পর্কে। ছোলায় আমিষের পরিমাণ মাংস বা মাছের আমিষের পরিমাণের প্রায় সমান। এতে প্রোটিন, কার্বোহাইড্রেট ও ফ্যাট ছাড়াও আছে বিভিন্ন ভিটামিন ও খনিজ লবণ। ইফতারিতে খাদ্য তালিকাকে সমৃদ্ধ করে শরীরকে কর্মক্ষম রাখে ছোলা। আসুন জেনে নেওয়া যাক ছোলার আরও কিছু গুণাগুণ-অস্থির ভাব দূর হয়
ছোলার শর্করার গ্লাইসেমিক ইনডেক্সের পরিমাণ কম, যা শরীরে প্রবেশ করলে অস্থির ভাব দূর হয়। ছোলা খাওয়ার পর অল্প সময়েই তা হজম হয়।

হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়
খাবারে ছোলা খাকলে কোলেস্টেরল এবং খারাপ কোলেস্টেরলের পরিমাণ কমে যায়। ছোলাতে দ্রবণীয় এবং অদ্রবণীয় উভয় ধরনের খাদ্য আঁশ আছে যা হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি কমিয়ে দেয়। আঁশ, পটাসিয়াম, ভিটামিন ‘সি’ এবং ভিটামিন বি-৬ হৃদযন্ত্রের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে সাহায্য করে।

চর্বি কমায়
নিয়মিত ছোলা খেলে আর নিয়মমতো পায়খানা হলে খাদ্যনালিতে ক্ষতিকর জীবাণু থাকতে পারে না। ফলে খাদ্যনালির ক্যানসার হওয়ার আশঙ্কা থাকে না বলা যায়। এর আঁশ রক্তের চর্বি কমায়। ছোলা দীর্ঘক্ষণ ধরে শক্তির জোগান দেয় শরীরে।

রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে
গবেষণায় দেখা গেছে, বেশি পরিমাণে ফলিক এসিডযুক্ত খাবার খেলে হাইপারটেনশনের প্রবণতা কমে যায়। ছোলায় প্রচুর পরিমাণ ফলিক এসিড থাকে, তাই ছোলা খেলে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখা সহজ হয়।

ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য উপকারী
ছোলা শর্করা গ্লুকোজ হয়ে দ্রুত রক্তে চলে যায় না। এজন্য এটি ডায়াবেটিকস রোগীর জন্য খুবই উপকারী খাবার। ছোলার ফ্যাটের বেশির ভাগই পলি আনস্যাচুয়েটেড ফ্যাট, যা শরীরের জন্য মোটেই ক্ষতিকর নয়।

শরীরের জ্বালাপোড়া কমায়
সালফার নামক খাদ্য উপাদান থাকে এই ছোলাতে। সালফার মাথা গরম হয়ে যাওয়া, হাত-পায়ের তলায় জ্বালাপোড়া কমায়।

মেরুদণ্ডের ব্যথা দূর করে
ছোলায় পর্যাপ্ত পরিমাণে ভিটামিন ‘বি’ রয়েছে। ভিটামিন ‘বি’ মেরুদণ্ডের ব্যথা, স্নায়ুর দুর্বলতা কমায়।

কোষ্ঠকাঠিন্য দূর হয়
ছোলায় খাদ্য আঁশও আছে বেশ। এ আঁশ কোষ্ঠকাঠিন্যে উপকারী। খাবারের আঁশ হজম হয় না। এভাবেই খাদ্যনালি অতিক্রম করতে থাকে। এতে কোষ্ঠকাঠিন্য দূর হয়। ফলে খাদ্যনালির ক্যান্সার হওয়ার সম্ভাবনা কমে। তাই রমজানে বেশি বেশি করে ছোলা খেয়ে নিজের শরীরকে সতেজ ও সুস্থ রাখুন।

মন্তব্য করুন

সর্বশেষ নিউজ

আরো পড়ুন