৫, এপ্রিল, ২০২০, রোববার

৪০ মিনিট চেষ্টা, তবুও ভোট দিতে পারলেন না আ. লীগ প্রার্থী

নিজস্ব প্রতিবেদক:
প্রকাশিত: ১২:৩১ অপরাহ্ন, ২১ মার্চ ২০২০, শনিবার


৪০ মিনিট চেষ্টা, তবুও ভোট দিতে পারলেন না আ. লীগ প্রার্থী

ছবি- সংগৃহীত

ভোটকেন্দ্রে ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে গিয়ে জটিলতার শিকার হয়েছেন ঢাকা-১০ আসনের উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মো. শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন। ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) জটিলতায় প্রায় ৪০ মিনিট ধরে অপেক্ষার পরও ভোট দিতে না পেরে কেন্দ্রে বসে আছেন সরকারি দলের এ প্রার্থী।

শনিবার (২১ মার্চ) সকাল ৯টা ৫০ মিনিটে রাজধানীর লেকসার্কার উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় কেন্দ্রে আসেন এই প্রার্থী। তিনি এ কেন্দ্রের ভোটার। বেলা ১০টা ৩০ পর্যন্ত তিনি ভোট দিতে পারেননি।

কেন্দ্রে প্রথমে ছবিযুক্ত তালিকা দেখে তার পরিচয় শনাক্ত করা হয়। কিন্তু মেশিনে ফিঙ্গারপ্রিন্ট না মেলায় জটিলতা সৃষ্টি হয়। পরে বাইরে রাখা প্রার্থীর গাড়ি থেকে ভোটার আইডি কার্ড নিয়ে আসা হয়। এতেও কাজ হয়নি। মেশিন বন্ধ করে পুনরায় চালু করা হয়। নির্বাচনি কর্মকর্তারা তার কাছে থাকা অন্য একটি কার্ড দিয়েও চেষ্টা করেন। টিস্যু দিয়ে আঙুল মুছে ম্যাচ করানোর চেষ্টা করা হয়। তাতেও কাজ হয়নি। অন্য আরেকটি মেশিনেও ট্রাই করা হয়, কিন্তু কোনো কিছুতে ফল হয়নি। ৪০ মিনিটের চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে আওয়ামী লীগ প্রার্থী শফিউল ইসলাম বেরিয়ে আসেন এবং ভোটকেন্দ্রের নিচের একটি কক্ষে অপেক্ষা করছেন।

বিষয়টি নিয়ে জানতে চাইলে প্রিজাইডিং কর্মকর্তা আহসানুল হক বলেন, ‘উনি সম্প্রতি উত্তরা থেকে মাইগ্রেট হয়ে ধানমন্ডিতে এসেছেন। এসডি কার্ডে উনার তথ্য আপডেট হয়নি।’ শেষ পর্যন্ত তিনি ভোট দিতে পারবেন কি না তা জানাতে পারেননি এই কর্মকর্তা।

শনিবার সকাল ৯টা থেকে ঢাকা-১০ আসনের উপনির্বাচনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) মাধ্যমে ভোটগ্রহণ চলছে। বিরতিহীন চলবে বিকাল ৫টা পর্যন্ত। ইভিএম ব্যবহারে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকির কথা জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। তবে হাতের মাধ্যমে যাতে জীবাণু না ছড়ায় সেজন্য ভোটকেন্দ্রে সেনিটাইজার ও টিস্যু রেখেছে নির্বাচন কমিশন।

এ আসনের উপনির্বাচনে ভোটের লড়াই করছেন ছয় প্রার্থী। আসনটিতে উপনির্বাচনে প্রতীক বরাদ্দের পর আওয়ামী লীগের প্রার্থী মো. শফিউল ইসলাম ‘নৌকা’ বিএনপি প্রার্থী শেখ রবিউল আলম ‘ধানের শীষ’, জাতীয় পার্টির (জাপা) মো. শাহজাহান ‘লাঙল’, বাংলাদেশ কংগ্রেসের মিজানুর রহমান চৌধুরী ‘ডাব’, বাংলাদেশ মুসলিম লীগের নবাব খাজা আলী হাসান আসকারী ‘হারিকেন’ ও প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দলের (পিডিপি) আব্দুর রহীম ‘বাঘ’ প্রতীক নিয়ে ভোটের মাঠে প্রচার চালিয়েছেন।

ঢাকা দক্ষিণ সিটির মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে এ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ফজলে নূর তাপস পদত্যাগ করলে আসনটি শূন্য হয়। এ আসনে মোট ভোটার ৩ লাখ ১২ হাজার ২৮১ জন। নির্বাচনে ১১৭টি ভোটকেন্দ্রের ৭৭৬টি ভোটকক্ষে ভোটগ্রহণ করা হচ্ছে।

এ আসনটি ধানমন্ডি ও হাজারীবাগ থানা এলাকা নিয়ে গঠিত। ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ১৪-১৮ নম্বর ওয়ার্ড ও ২২ নম্বর ওয়ার্ড এ আসনের অন্তর্ভুক্ত।

মন্তব্য করুন

খবর অনুসন্ধান

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০  

সর্বশেষ নিউজ

আরো পড়ুন

Shares