৫, এপ্রিল, ২০২০, রোববার

স্ত্রীর দুই হাত ভেঙে ওয়াজ করতে গিয়ে গণপিটুনি খেলেন মাওলানা

প্রতিদিনের কাগজ ডেস্ক:
প্রকাশিত: ১০:৩৩ অপরাহ্ন, ৩ মার্চ ২০২০, মঙ্গলবার


স্ত্রীর দুই হাত ভেঙে ওয়াজ করতে গিয়ে গণপিটুনি খেলেন মাওলানা

ছবি- সংগৃহীত

যৌতুকের দাবিতে নিজের স্ত্রীকে মারধর করে হাত ভেঙে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে এএইচএম সোয়াইব হোসাইন সিদ্দিকী নামের এক মাওলানার বিরুদ্ধে। এরই জের ধরে রবিবার রংপুরের পীরগঞ্জে একটি ইসলামি জলসায় ওয়াজ করতে গিয়ে গণপিটুনির শিকার হয়েছেন তিনি। পরে তাকে থানায় সোপর্দ করা হয়।

এ ঘটনায় রাতেই মাওলানা এএইচএম সোয়াইব হোসাইন সিদ্দিকীকে আসামি করে গাইবান্ধার সাদুল্যাপুর থানায় মামলা করেন তার শাশুড়ি কোহিনুর বেগম।

স্থানীয় সূত্র জানায়, দেড় বছর আগে মাওলানা সোয়াইব হোসাইন সিদ্দিকীর সঙ্গে রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার দূরা মিঠিপুর গ্রামের মৃত ইব্রাহিম সরকারের মেয়ে সোমিয়া ছিদ্দিকার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে মাওলানা সিদ্দিকী যৌতুকের দাবিতে তার স্ত্রীকে প্রায়ই মারপিট করতেন তিনি। গত ১৮ জানুয়ারি লোহার রড দিয়ে স্ত্রীকে পেটালে তার দুই হাত ভেঙে যায়। এরপর তাকে ঘরে আটকে রেখে ইসলামি জলসায় ওয়াজ করার জন্য বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান। পরে সোমিয়ার চিৎকারে আশপাশের লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে রংপুরে মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন।

ওয়াজ করতে যাওয়ার পর স্ত্রী ও পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দেন মাওলানা সিদ্দিকী। কোনোভাবেই তার সন্ধান মিলছিল না। প্রায় দেড় মাস পর রবিবার রংপুরের পীরগঞ্জে একটি ইসলামি জলসায় ওয়াজ করার জন্য অতিথি হয়ে আসেন তিনি। খবর পেয়ে স্ত্রী সোমিয়ার পরিবারসহ আশপাশের লোকজন একত্র হয়ে তাকে আটক করে উত্তম-মধ্যম দেয়। পরে সাদুল্যাপুর থানা পুলিশের হাতে তাকে তুলে দেয়া হয়।

সাদুল্যাপুর থানা পুলিশের ওসি মাসুদ রানা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, অভিযুক্ত মাওলানা সিদ্দিকীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মন্তব্য করুন

খবর অনুসন্ধান

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০  

সর্বশেষ নিউজ

আরো পড়ুন

Shares