৩, এপ্রিল, ২০২০, শুক্রবার

মুজিববর্ষে এক কোটি নারীকে স্বাবলম্বী করার লক্ষ্যে প্রশিক্ষণ

প্রতিদিনের কাগজ রিপোর্ট:
প্রকাশিত: ৯:৪৯ পূর্বাহ্ন, ৯ ফেব্রুয়ারী ২০২০, রোববার


মুজিববর্ষে এক কোটি নারীকে স্বাবলম্বী করার লক্ষ্যে প্রশিক্ষণ

ফাইল ছবি

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ বা মুজিববর্ষে দেশের এক কোটি নারীকে স্বাবলম্বী করার লক্ষ্যে বিভিন্ন প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। মহিলা ও শিশুবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী বেগম ফজিলাতুন নেছা ইন্দিরা শনিবার পবা উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে রাজশাহী জেলা ও মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের কর্মিসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ তথ্য জানান।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, মুজিববর্ষে প্রশিক্ষণ পাওয়ার পর এ এক কোটি নারী আর বেকার থাকবেন না। তারা নিজেরাই বিভিন্ন কাজের সঙ্গে নিজেদের সম্পৃক্ত করে স্বাবলম্বী হয়ে উঠবেন। এর ফলে দেশের মাথাপিছু আয় বাড়বে। দারিদ্র্য কমবে। নারীরাও দেশের উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবেন।

আওয়ামী লীগের সাবেক মহিলা বিষয়ক সম্পাদক ইন্দিরা বলেন, বর্তমান সরকার নারীবান্ধব সরকার। নারীদের উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। শেখ হাসিনার সরকারই জাতীয় সংসদে নারীদের আসন বাড়িয়ে ৫০টি করেছে। আর বিএনপি সরকার নারীদের অন্ধকারে ছুড়ে দিয়েছিল।

কর্মিসভায় আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য বেগম আখতার জাহান, রাজশাহী-৩ আসনের এমপি আয়েন উদ্দিন, সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি আদিবা আনজুম মিতা, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মেরাজ উদ্দিন মোল্লা, সাধারণ সম্পাদক কাজী আবদুল ওয়াদুদ দারা উপস্থিত ছিলেন।

মুজিববর্ষে এক লাখ নারী উদ্যোক্তা তৈরি করা হবে : এদিকে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ বা মুজিববর্ষে এক লাখ নারী উদ্যোক্তা তৈরির পরিকল্পনা নিয়েছে মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয়। মুজিববর্ষ উদযাপন উপলক্ষে সম্প্রতি এক আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় এ তথ্য জানান মহিলা ও শিশুবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী বেগম ফজিলাতুন নেছা। প্রতিমন্ত্রী বলেন, মুজিববর্ষ হবে বাংলাদেশে বাল্যবিয়ে বন্ধের ভিত্তি বছর। বাল্যবিয়ে বন্ধে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের মাধ্যমে দেশের সব জেলা প্রশাসকের কাছে চিঠি পাঠানো হয়েছে। সম্মিলিত সহযোগিতায় বাংলাদেশকে বাল্যবিয়ে মুক্ত দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠা করা হবে।

সভায় জানানো হয়- জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস যথাযথ মর্যাদায় আড়ম্বরপূর্ণভাবে উদযাপন উপলক্ষে ১৭ মার্চ টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতার সমাধিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করবেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এছাড়া মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয় ও গোপালগঞ্জ জেলা প্রশাসনের যৌথ আয়োজনে টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবসের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনা, ১০০টি পায়রা অবমুক্তকরণ ও ১০০টি বেলুন উড়ানোর মাধ্যমে জাতীয় শিশু দিবসের অনুষ্ঠান শুরু হবে। অনুষ্ঠানে থাকবে ‘বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ’ শীর্ষক গোপালগঞ্জ জেলার বিভিন্ন স্কুলের শিক্ষার্থীদের লেখা নিয়ে বিশেষ প্রকাশনা ও শিশু একাডেমি প্রকাশিত বঙ্গবন্ধু সম্পর্কিত চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় সেরা ১০০টি রচনার সংকলন গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন।

একই অনুষ্ঠানে মেধাবী শিশুদের মাঝে ১০০টি ল্যাপটপ বিতরণ করা হবে। আরও থাকবে বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন শিশুদের পরিবেশনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, কাব্যনৃত্য, গীতি আলেখ্যানুষ্ঠান ও বইমেলা এবং ‘বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ’ শীর্ষক চিত্রপ্রদর্শনী।

মহিলা ও শিশুবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী বেগম ফজিলাতুন নেছার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় উপস্থিত ছিলেন রাষ্ট্রপতির কার্যালয়, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ, অর্থ মন্ত্রণালয়, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়সহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিরা।

মন্তব্য করুন

খবর অনুসন্ধান

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০  

সর্বশেষ নিউজ

আরো পড়ুন

Shares