১৫, ডিসেম্বর, ২০১৯, রোববার

ঢাকা থেকে দিল্লি, সাকিবকে নিয়ে ‘হাহাকার’

স্পোর্টস ডেস্ক: :
প্রকাশিত: ৩:৪৮ অপরাহ্ন, ৩ নভেম্বর ১৯ , রোববার

নিউজটি পড়া হয়েছে ৪ বার
ঢাকা থেকে দিল্লি, সাকিবকে নিয়ে ‘হাহাকার’

‘আচ্ছা দাদা, বলুন তো, সাকিবের শাস্তি-টা কি ঠিক হলো? একদম মেনে নেওয়ার মতো না বিষয়টা।’ কলকাতার নেতাজী সুভাষ চন্দ্র আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নামতেই সেখানকার একজন ইমিগ্রেশন কর্মকর্তা সাকিবকে নিয়ে আক্ষেপের সুরে এ কথা বলেন।

ভারতে আসার উদ্দেশ্য কী-এমন প্রশ্নের উত্তরে এই কর্মকর্তা যখন শুনলেন বাংলাদেশ-ভারত সিরিজ কাভার করতে এসেছি, তখনই এমন মন্তব্য করে বসেন তিনি।

ভারতীয় বাঙালি এই কর্মকর্তার প্রশ্ন সাকিবকে ছাড়া কী করে খেলবে বাংলাদেশ? তবে এই প্রশ্ন যে শুধু তার একার, এমনটি নয়। এ প্রশ্ন বাংলাদেশের অনেক মানুষের।

ঢাকা থেকে দিল্লি আকাশ পথে মাত্র তিন ঘণ্টার রাস্তা। কিন্তু কলকাতায় বিমানবন্দরে সাত ঘণ্টার ট্রানজিটের কারণে দিল্লি পৌঁছাতেই তা গিয়ে দাড়ায় ১০ ঘণ্টায়! এই যাত্রাপথে যতজনের সঙ্গে কথা হয়েছে সবারই একটা প্রশ্ন। সাকিব!

বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডারের শাস্তি এমন একটা সময়ে হলো, যখন ভারত সিরিজ নাকের ডগায়। এর কদিন আগেই বাংলাদেশের ক্রিকেটের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় ও সফল আন্দোলনেরও ইতিহাস সৃষ্টি হয়েছে। এই আন্দোলনে সামনের সারিতে ছিলেন বাংলাদেশের সদ্য সাবেক টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক সাকিব আল হাসান।

এই আন্দোলনের সপ্তাহ খানেক পরেই সাকিবের ওপর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) দুই বছরের নিষেধাজ্ঞা দিল। এই আন্দোলনের সঙ্গে ক্রিকেটপ্রেমীরা খুঁজেছেন সাকিবের শাস্তির কোনো যোগসাজোশ আছে কি না।

যাত্রাপথে বিমান সংস্থার একজন কর্মী বলেন, ‘আপনার কি মনে হয় দুই বছর সাকিবের ওপর এমনে এমনেই শাস্তি হয়েছে?’ তার বলার ভঙ্গি দেখে হ্যাঁ-না বলার কোনো উপায়ই ছিল না আমার।

বিমান সংস্থার এই কর্মীর মতো সাকিব ভক্তরা অনলাইন-অফলাইনে তুমুল আন্দোলনে নেমেছিলেন। এ জন্য নিষেধাজ্ঞা পাওয়ার তিনদিন পর নিজেই ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিয়ে স্পষ্ট জানিয়ে দেন সাকিব। এই শাস্তি সম্পর্কে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) জেনেছে ঘোষণার দুদিন আগে। এটা সম্পূর্ণ আইসিসির দুর্নীতি বিরোধী সংস্থার (আকসু) অধীনে ছিল। এসব কথা বলে সমর্থকদের ধৈর্য ধরার আহব্বান জানিয়ে শান্ত থাকতে বলেন।

দীর্ঘ সময় ধরে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) ফ্র্যাঞ্চাইজি কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে খেলেছেন সাকিব। একেতো বাঙালি তার ওপর খেলেছেন কলকাতার হয়ে। শিরোপা জয়েও রেখেছিলেন গুরত্বপূর্ণ অবদান। তাই সাকিবের প্রতি কলকাতাবাসীও পরম ভালবাসা রয়েছে। তাইতো দুঃসময়ে সাকিবকে ভুলে যাননি তারা।

ভারতের মাটিতে তিনটি টি-টোয়েন্টি ও দুটি টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ। কলকাতার বিখ্যাত ইডেন গার্ডেনে সিরিজের সর্বশেষ টেস্ট ম্যাচটি খেলবে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। এই ম্যাচে নিঃসন্দেহে ১১ বাঙালির মধ্যে সাকিবকেও খুঁজে বেড়াবেন কলকাতার ক্রিকেটপ্রেমীরা।

আজ নয়াদিল্লির অরুণ জেটলি স্টেডিয়ামে প্রথম টি-টোয়েন্টি দিয়ে শুরু হয়েছে ভারতের মাটিতে বাংলাদেশের সর্বপ্রথম এত লম্বা সিরিজ। মাহমুদউল্লাহর নেতৃত্বে বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় খেলতে নেমেছে রাসেল ডমিঙ্গোর শিষ্যরা।

ভারতের উদ্দেশে দেশ ছাড়ার আগে ক্রিকেটাররা বলেছেন সাকিবকে এই সিরিজে সবাই ভীষণ মিস করবেন। দলের সবচেয়ে সেরা খেলোয়াড়কে হারিয়ে হতবিহব্বল ছিলেন সতীর্থরাও। আগামী এক বছর সাকিবকে পাওয়া যাবে না মাঠে, এখন শুধু হাহাকার করা ছাড়া কোনো উপায়ও নেই!

মন্তব্য করুন

খবর অনুসন্ধান

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  

সর্বশেষ নিউজ

আরো পড়ুন

Shares