২১, অক্টোবর, ২০১৯, সোমবার

ঠাণ্ডার সমস্যা দূর করতে আদার মিশ্রণ

অনলাইন ডেস্ক: | আপডেট: ২১, অক্টোবর, ২০১৯, সোমবার

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের বাণিজ্যিক কার্যক্রম উদ্বোধন প্রধানমন্ত্রীর

ঠাণ্ডা লেগে বুকে গলায় অস্বস্তি হলে মধু, ময়দা, আদা ও জলপাইয়ের তেল মাখানো মিশ্রণ উপকার দিতে পারে। স্বাস্থ্যবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে প্রাকৃতিক উপাদান আদা ও মধুর মিশ্রণ তৈরি ও ব্যবহার পদ্ধতি এখানে দেয়া হলো।

প্রাকৃতিক উপাদানের সাহায্যে ঠাণ্ডা ও গলা ব্যথার চিকিৎসা করা হলে তা খরচ বাঁচানোর পাশাপাশি কার্যকরভাবে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ছাড়াই দ্রæত রোগ মুক্তিতে সাহায্য করে।

প্রয়োজন হবে: আদা কুচি, খাটি মধু, জলপাইয়ের তেল, ময়দা, টিস্যু পেপার, গজ এবং ফিতা। মধু ও ময়দা একসঙ্গে মিশিয়ে তাতে আদার কুচি এবং দুই-তিন ফোঁটা জলপাইয়ের তেল মেশান। মিশ্রিণটি সামান্য পরিমাণে টিস্যুতে নিয়ে বুকে টেপ দিয়ে আটকে নিন। এটা রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে ব্যবহার করা ভালো। আদা একটা মসলাদার মূল যা ঘাম সৃষ্টি করে এবং ঠাণ্ডার লক্ষণ কমাতে কার্যকর ভূমিকা রাখে।

তবে শিশু ও যাদের ত্বক সংবেদনশীল তাদের ব্যবহারের আগে খানিকটা সাবধানতার প্রয়োজন রয়েছে। আদার উপকারিতা সম্পর্কে কম বেশি সবারই জানা। এটা ঠাণ্ডা ও কফ দূর করতে সাহায্য করে। আদা ও মধুর তৈরি পানীয় গলা ব্যথায় আরাম দেয় এবং ভাইরাস সংক্রমণে বাধা দেয়। এছাড়া আদা ও মধুর রয়েছে নানা উপকারিতা।

আদা ও মধুর সংমিশ্রণে তৈরি যৌগের আছে দীর্ঘস্থায়ী সংক্রমণ ও গলা ব্যথা দূর করার ক্ষমতা। আদার কড়া ও ঝাঁঝাল স্বাদ সাইনাস খুলে দেয় এবং শ্লেষ্মা থেকে মুক্তি দেয়। জ্বালাপোড়া ভাব, গলার খুশখুশ ও অস্বস্তিভাব দূর করতে সাহায্য করে। এছাড়া এটা রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় এবং নানা রকমের সংক্রমণ থেকে মুক্তি দিয়ে সহায়তা করে। তবে বেশিদিন ঠাণ্ডার সমস্যা থাকলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ

আরো পড়ুন

%d bloggers like this: