১৫, ডিসেম্বর, ২০১৯, রোববার

জিনিসপত্রের দাম কমান নয়তো ক্ষমতা ছেড়ে দিন: সরকারের উদ্দেশে চরমোনাই পীর

প্রতিদিনের কাগজ' রিপোর্ট :
প্রকাশিত: ৯:১৩ অপরাহ্ন, ৪ ডিসেম্বর ১৯ , বুধবার

নিউজটি পড়া হয়েছে ৯ বার

ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন আয়োজিত কেন্দ্রীয় সম্মেলনে বক্তব্য দেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমির ও চরমোনাই পীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম

নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের মূল্যবৃদ্ধি অতীতের সব রেকর্ড ভঙ্গ করেছে বলে দাবি করেছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমির ও চরমোনাই পীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম।
সরকারের উদ্দেশে তিনি বলেন, জিনিসপত্রের দাম কমান নয়তো ক্ষমতা ছেড়ে দিন।

আজ বুধবার দুপুরে রাজধানীর সেগুনবাগিচায় বিএমএ মিলনায়তনে ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন আয়োজিত কেন্দ্রীয় সম্মেলনে তিনি এই আহ্বান জানান।

সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম বলেন, একটি স্বাধীন রাষ্ট্রে পরিকল্পিতভাবে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম এতদিন বাড়িয়ে রাখার ইতিহাস নজিরবিহীন। ব্যর্থ সমাজতন্ত্র, পুঁজিবাদী গণতন্ত্র ও ইসলামবিরোধী ধর্মনিরপেক্ষদের হাতে বিক্রি হওয়া শাসকগোষ্ঠীর কাছে এর চেয়ে বেশি কিছু আশা করাও হবে বোকামি।

তিনি বলেন, মানুষের মৌলিক অধিকার ও দেশে স্থায়ী শান্তি প্রতিষ্ঠা, সড়কে অব্যাহত প্রাণহানি থেকে মুক্তি পেতে হলে মানবরচিত ধোঁকাবাজি ও ধাপ্পাবাজির তন্ত্র-মন্ত্র থেকে সরে এসে ইসলামকে রাষ্ট্রক্ষমতায় নিয়ে আসতে হবে।

তিনি আরও বলেন, যেহেতু বিগত ৪৮ বছর ধরে রাজনৈতিক মতবাদসমূহ বাংলাদেশে সাম্য, মানবিক মর্যাদা ও সামাজিক ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা করতে ব্যর্থ হয়েছে, সেহেতু বিদ্যমান মতবাদের জায়গায় ইসলামকে রাজনৈতিক মতবাদ হিসেবে প্রতিষ্ঠা করতে হবে। বাংলাদেশের রাজনীতিতে ভারতসহ ভিনদেশি প্রভাব রোধ করতে সব রাজনৈতিক শক্তির ঐক্য গড়ে তুলতে হবে।

ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সভাপতি শেখ ফজলুল করীম মারুফের সভাপতিত্বে ও সেক্রেটারি জেনারেল মুহাম্মাদ মুস্তাকিম বিল্লাহর সঞ্চালনায় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ এর প্রেসিডিয়াম সদস্য প্রিন্সিপাল মাওলানা সৈয়দ মুসাদ্দেক বিল্লাহ আল মাদানী, সিনিয়র নায়েবে আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মাদ ফয়জুল করীম, নায়েবে আমীর মাওলানা আব্দুল হক আজাদ, মহাসচিব অধ্যক্ষ হাফেজ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ, রাজনৈতিক উপদেষ্টা অধ্যাপক আশরাফ আলী আকন, যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা নেয়ামতুল্লাহ্ আল-ফরিদী, অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান, মাওলানা গাজী আতাউর রহমান, সহকারী মহাসচিব আলহাজ্ব আমিনুল ইসলাম, কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার আশরাফুল আলম, কেন্দ্রীয় ছাত্র ও যুব বিষয়ক সম্পাদক ও চরমোনাই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মুফতী সৈয়দ এছহাক মুহাম্মাদ আবুল খায়ের, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মাওলানা আহমাদ আবদুল কাইউম, কৃষি ও শ্রম বিষয়ক সম্পাদক আবদুর রহমান, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ সভাপতি মাওলানা ইমতিয়াজ আলম, উত্তর সভাপতি মাওলানা শেখ ফজলে বারী মাসউদ, ইসলামী যুব আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সভাপতি কেএম আতিকুর রহমান, সদস্য অধ্যাপক সৈয়দ বেলায়েত হোসেন, ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন-এর সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি মাওলানা বরকত উল্লাহ লতিফ, জিএম রুহুল আমীনসহ কেন্দ্রীয় অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি এম হাছিবুল ইসলাম, জয়েন্ট সেক্রেটারি জেনারেল নূরুল করীম আকরাম, সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম আব্দুজ্জাহের আরেফী, প্রশিক্ষণ সম্পাদক শেখ মুহাম্মাদ আল-আমিন, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক মুহাম্মাদ আব্দুল জলিল, পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় সম্পাদক শরিফুল ইসলাম রিয়াদ, প্রচার ও যোগাযোগ সম্পাদক কে এম শরীয়াতুল্লাহ, প্রকাশনা সম্পাদক ইউসুফ আহমাদ মানসুর, অর্থ ও কল্যাণ সম্পাদক গাজী মুহাম্মাদ ওসমান গণী, কলেজ সম্পাদক এম এম শোয়াইব, কওমি মাদ্রাসা বিষয়ক সম্পাদক আলমগীর হোসাইন মাহমুদ, আলিয়া মাদ্রাসা সম্পাদক সাইফ মুহাম্মাদ সালমান, স্কুল সম্পাদক শেখ ইহতেশাম বিল্লাহ আজিজী, প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় সম্পাদক মাহমুদুল হাসান, সাহিত্য ও সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক নূরুল বশর আজিজী, সদস্য এম এ হাসিব গোলদার, মুহাম্মাদ সিরাজুল ইসলাম, এইচ এম সাখাওয়াত উল্লাহ ও মুহাম্মাদ ইবরাহীম হুসাইন।

সম্মেলনের প্রধান অতিথি পীর সাহেব চরমোনাই তার বক্তব্য শেষে ২০১৯ সেশনের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করে ২০২০ সেশনের নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়।

নবঘোষিত কেন্দ্রীয় কমিটি হলো সভাপতি এম হাছিবুল ইসলাম সহ-সভাপতি মুহাম্মাদ আব্দুল জলিল সেক্রেটারি জেনারেল নূরুল করীম আকরাম।

মন্তব্য করুন

খবর অনুসন্ধান

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  

সর্বশেষ নিউজ

আরো পড়ুন

Shares