১৩, নভেম্বর, ২০১৯, বুধবার

কে হচ্ছেন যুবলীগের পরবর্তী চেয়ারম্যান: শেখ ফজলে নূর তাপস, মাশরাফি বিন মুর্তজা নাকি অন্য কেউ?

নিজস্ব প্রতিনিধি :
প্রকাশিত: ৭:০০ পূর্বাহ্ন, ১৩, নভেম্বর, ২০১৯, বুধবার

নিউজটি পড়া হয়েছে ০ বার
কে হচ্ছেন যুবলীগের পরবর্তী চেয়ারম্যান: শেখ ফজলে নূর তাপস, মাশরাফি বিন মুর্তজা নাকি অন্য কেউ?

যুবলীগের পরবর্তী চেয়ারম্যান হিসেবে সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস এবং জাতীয় ওয়ানডে ক্রিকেট দলের অধিনায়ক ও সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মুর্তজার নাম আলোচিত হচ্ছে। এর বাইরেও অনেক নাম আলোচনায় আসছে। তাহলে কে হচ্ছেন যুবলীগের পরবর্তী চেয়ারম্যান? জানতে চাইলে লেখক ও গবেষক মহিউদ্দিন আহমদ বলেন, রাজনৈতিক দলগুলোর অঙ্গ-সংগঠনের সংস্কৃতি বন্ধ হওয়া উচিত। বিভিন্ন কমিটিতে প্রোভাইড করা ও ঠিকাদারি দেয়া ছাড়া অন্য কোনো কাজ তাদের নেই। রাজনৈতিক সংগঠনগুলোর কোনো ভ্যালু এডিশন আমি দেখি না। নানা জায়গায় নানাজনে নেতৃত্ব দিচ্ছেন। কিন্তু সবাইকে রাজনৈতিক দলের কমিটিতে রাখতে হবে কেন? তারা তো যার যার ক্ষেত্রে নেতৃত্ব দিচ্ছেন। সিপিবির সম্পাদক রুহিন হোসেন প্রিন্স বলেন, যে পদ্ধতিতে যুবলীগের চেয়ারম্যান পদের জন্য নামগুলো আসছে, তা সাংগঠনিক পদ্ধতি বলে আমরা মনে করি না। এখানে সংগঠন তার গঠনতন্ত্র অনুযায়ী চলবে। কাউন্সিল করবে, সেখানেই নির্ধারণ হবে কে, কারা নেতৃত্ব দেবেন সংগঠন। কিন্তু কোনো ব্যক্তিকে ওপর থেকে চাপিয়ে দেয়া গণতন্ত্রকে খর্ব করে।
সুচিন্তা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ও রাজনৈতিক বিশ্লেষক মোহাম্মদ এ আরাফাত বলেন, ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস এবং মাশরাফি বিন মুর্তজা দুজনকেই আমি অনেক যোগ্য ও ভালো রাজনীতিবিদ মনে করি। নেতৃত্ব দেওয়ার মতো সব ধরনের যোগ্যতা তাদের আছে। সম্ভাবনাও বিপুল। কিন্তু তাদের যুবলীগের নেতৃত্বের বিষয়ে যে প্রশ্ন উঠেছে, তা একটা গুজব। গুজবকে ভিত্তি ধরে কোনো কথা বলা উচিত নয়। বলতেও চাই না।
গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি বলেন, যুব সংগঠনের নেতৃত্বে যুবদেরই রাখা দরকার। যারা তরুণদের নিয়ে কাজ করতে আগ্রহী, ইতিবাচক ভাবমূর্তি যাদের আছে, তারা যুব সংগঠনের নেতৃত্বে এলে ভালো। কিন্তু যুব সংগঠনের প্রেসিডেন্ট- সেক্রেটারিই যুব সংগঠনের পুরো চরিত্র নির্ধারণ করবেন, এটা বড় দুদলের ক্ষেত্রে বলা যায় না। কারণ তাদের রাজনীতি সামগ্রিক অবস্থান নিয়েই। আসলে সংগঠনগুলোর চরিত্র নির্ধারণ করে এসেছে। ভবিষ্যতে সেই অবস্থান বদলাবে কিনা সেই লক্ষণ এখনো দেখা যাচ্ছে না।
রাজনৈতিক বিশ্লেষক ও অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট আরিফ জেবতিক বলেন, ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস এর আগে বড় কোনো সংগঠনের দায়িত্ব ওইভাবে পালন করেননি। কারণ তিনি খুবই ব্যস্ত একজন আইনজীবী এবং সংসদীয় এলাকার লোকজনও তার দিকে তাকিয়ে আছে। আইনজীবী হিসেবে সামাজিক আরও অনেকগুলো দায়িত্ব পালন করেন। সংসদের অনেকগুলো কমিটির সদস্য তিনি। এতো কিছুর পর যুবলীগের মতো একটি সংগঠন তার ঘাড়ে দিয়ে দিলে অ্যাফিসিয়েন্সির জায়গা থেকে ন্যায্য হবে কিনা বোঝা যাচ্ছে না। মাশরাফি বিন মুর্তজা একজন অসাধারণ নেতা। কিন্তু আপনি যখন তাকে রাজনৈতিক দক্ষতা অর্জনের আগে কোনো বড় সংগঠনের দায়িত্ব দিয়ে দেবেন, এতে তার প্রতিও একটা অন্যায্য করা হবে। রাজনীতিতে যথেষ্ট অভিজ্ঞতা অর্জনের আগে একটা বড় সংগঠনের দায়িত্ব তাকে সরাসরি দেয়া উচিত হবে না। তার নেতৃত্বে আসা উচিত, তবে রাজনীতিতে যথেষ্ট দক্ষতা ও অভিজ্ঞতার অজনের পর।

মন্তব্য করুন

খবর অনুসন্ধান

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০  

সর্বশেষ নিউজ

আরো পড়ুন

Shares