২১, অক্টোবর, ২০১৯, সোমবার

আবরার হত্যার প্রতিবাদে ছাত্রদলের দু’দিনের কর্মসূচি ঘোষণা

স্টাফ রিপোর্টার : | আপডেট: ২১, অক্টোবর, ২০১৯, সোমবার

আবরার হত্যার প্রতিবাদে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রদলের বিক্ষোভ। ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যার প্রতিবাদে দেশব্যাপী ২ দিনের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে জাতীয়বাবাদী ছাত্রদল।
কর্মসূচির অংশ হিসেবে আগামীকাল বুধবার সব জেলা, মহানগর ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে এবং ১০ অক্টোবর বৃহস্পতিবার সব থানা, পৌর ও কলেজগুলোতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করবে ছাত্রদল।
সোমবার রাতে ছাত্রদল নেতা আব্দুস সাত্তার পাটোয়ারির সই করা এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কর্মসূচির কথা জানানো হয়।
সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, দেশবিরোধী চুক্তির প্রতিবাদ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে স্ট্যাটাস দেয়ায় বুয়েট ছাত্র আবরারকে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা পিটিয়ে নির্মমভাবে হত্যা করার ঘটনার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে ছাত্রদলের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন ও সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল ২ দিনের কর্মসূচি ঘোষণা করেছেন।
জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন ও সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল নেতা-কর্মীদের কর্মসূচি যথাযথভাবে পালন করার আহবান জানান।
বিজ্ঞপ্তিতে আবরারের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনার পাশাপাশি হত্যাকারীদের খুঁজে বের করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানানো হয়।
প্রসঙ্গত রোববার দিবাগত রাত ৩টার দিকে বুয়েটের শেরেবাংলা হলের একতলা থেকে দোতলায় ওঠার সিঁড়ির মাঝ থেকে আবরারের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। জানা যায়, ওই রাতেই ২০১১ নম্বর কক্ষে আবরারকে ডেকে নিয়ে পেটান বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতা।
পুলিশ জানিয়েছে, আবরারের দেহে অসংখ্য আঘাতের চিহ্ণ পাওয়া গেছে। তাকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক জানিয়েছেন, তার লাশে অসংখ্য আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে।
আবরার বুয়েটের তড়িৎ ও ইলেকট্রনিক প্রকৌশল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের (১৭তম ব্যাচ) শিক্ষার্থী ছিলেন।
হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় ১৯ জনকে আসামি করে সোমবার সন্ধ্যার পর চকবাজার থানায় একটি হত্যা মামলা করেন নিহত আবরারের বাবা বরকত উল্লাহ। এ ঘটনায় বুয়েট ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকসহ কয়েকজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বুয়েট ছাত্রলীগ থেকে স্থায়ী বহিষ্কার করা হয়েছে ১১ জনকে।

আরো পড়ুন

%d bloggers like this: