শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৬:৫৭ পিএম

ময়মনসিংহ সদরে বাল্যবিবাহের বিরুদ্ধে ইউএনও’র কড়া এ্যাকশন

স্টাফ রিপোর্টার:
প্রকাশিত: ১২:৩২ অপরাহ্ন, ১২ সেপ্টেম্বর ২০২০, শনিবার


ময়মনসিংহ সদরে বাল্যবিবাহের বিরুদ্ধে ইউএনও’র কড়া এ্যাকশন

ছবি : সংগৃহীত

১দিনে বিয়ে তিনটি বন্ধ, একজনের কারাদণ্ড

ময়মনসিংহের সদর উপজেলা কে বাল্যবিবাহ মুক্ত করতে জিরোটলারেন্স নিয়ে কাজ করছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাইফুল ইসলাম। যেখানে বাল্যবিবাহ সেখানেই প্রতিরোধ। তারই ধারাবাহিকতায় তিনি শুক্রবার ১১ই সেপ্টেম্বর সদরের বিভিন্ন এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান পরিচালনা করে এক দিনে বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন,২০১৭ অনুযায়ী ময়মনসিংহ সদর উপজেলায় তিনটি বাল্যবিবাহ বন্ধ করেন এবং শম্ভুগঞ্জের চর কালিবাড়ীতে বাল্যবিবাহের দায়ে একজনকে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ।

শুক্রবার (১১ই সেপ্টেম্বর) বিকালে তিনি গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারেন উপজেলা সদরের ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মাসকান্দা গণসার মোড় এলাকায় স্থানীয় বকুলীর মেয়ে স্বর্ণাকে অপ্রাপ্ত বয়সে বিয়ে দেওয়া হচ্ছে। তিনি ঘটনাস্থলে গিয়ে বিয়ে বন্ধ করে স্বর্ণাকে বাল্য বিবাহের কবল থেকে রক্ষা করে জানতে পারেন একই এলাকায় আরেকটি বাল্যবিবাহের সংবাদ। পরে সেখানে গিয়ে সেই বাল্যবিবাহ বন্ধ করেন। একই দিনে নগরীর শম্ভুগঞ্জের চর কালিবাড়ী পাওয়ার ষ্টেশন সংলগ্ন এলাকায় গিয়ে আয়োজিত একটি বাল্যবিয়ে বন্ধ করেন সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহি ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ সাইফুল ইসলাম ।

জানা যায়, মাসকান্দা গনসার মোড় এলাকার বকুলী গোপনে তার অপ্রাপ্ত বয়স্ক মেয়ে স্বর্ণাকে বিয়ে দেওয়ার আয়োজন করেন। খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ সাইফুল ইসলাম ঘটনাস্থল পৌঁছে প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বিয়ের আয়োজন করবেন না এই মর্মে উভয় পক্ষের মুচলেকা নিয়ে বাল্যবিয়ের আয়োজন ভেঙ্গে দেন। সেই সাথে একই ভাবে একই এলাকায় আরেকটি বাল্যবিবাহ ভেঙ্গে দেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাইফুল ইসলাম।

একই দিনে তিনি জানতে পারেন- নগরীর শম্ভুগঞ্জের চর কালিবাড়ী পাওয়ার ষ্টেশন সংলগ্ন এলাকায় গিয়ে আরেকটি বাল্যবিয়ে বন্ধ করেন সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহি ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ সাইফুল ইসলাম । এসময় তিনি বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন,২০১৭ অনুযায়ী ময়মনসিংহের শম্ভুগঞ্জের চর কালিবাড়ীতে বাল্যবিবাহের দায়ে শাকিব হোসেন নামক এক বরকে বাল্যবিবাহের দায়ে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন। এই সময় উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা ও পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত ছিল।

প্রসঙ্গত, ময়মনসিংহ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ সাইফুল ইসলাম ময়মনসিংহ সদরে যোগদানের পর থেকে বাল্যবিবাহ,ইভটিজিং,অনিয়ম-দুর্নীতির বিরুদ্ধে দিন-রাত নিরলস শ্রম দিয়ে সদর উপজেলা কে মডেল হিসাবে সদরবাসী কে উপহার দিতে প্রাণপন চেষ্টা করে যাচ্ছেন।

মন্তব্য করুন

সর্বশেষ নিউজ

আরো পড়ুন