শনিবার, ৪ জুলাই ২০২০, ৭:৩২ পিএম

ভার্চ্যুয়াল কোর্টে বিচারের বৈধতা দিতে সংসদে বিল উত্থাপন

প্রতিদিনের কাগজ ডেস্ক:
প্রকাশিত: ৪:২৭ অপরাহ্ন, ২৩ জুন ২০২০, মঙ্গলবার


ভার্চ্যুয়াল কোর্টে বিচারের বৈধতা দিতে সংসদে বিল উত্থাপন

ছবি : সংগৃহীত ।

করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) মহামারির চলমান সংকটময় পরিস্থিতিতে ডিজিটাল মাধ্যমে বিচার কার্যক্রম চালিয়ে নিতে আদালত তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার বিল-২০২০ সংসদে উপস্থাপন করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৩ জুন) দুপুরে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদ অধিবেশনে বিলটি উত্থাপন করেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

মামলার বিচার বিচারিক অনুসন্ধান, দরখাস্ত, আপিল শুনানি, সাক্ষ্যগ্রহণ, যুক্তিতর্কগ্রহণ, আদেশ বা রায় প্রদানকালে পক্ষদের ভার্চ্যুয়াল উপস্থিতি নিশ্চিত করার উদ্দেশে এ বিল আনা হয়েছে উথাপিত বিলে বলা হয়েছে।

ফৌজদারি কার্যবিধি বা দেওয়ানি কার্যবিধি বা আপাতত বলবৎ অন্য কোনো আইনে যাই থাকুক না কেন যেকোনো আদালত এ আইনের ধারা ৫ এর অধীনে জারিকৃত প্রাকটিস নির্দেশনা (বিশেষ বা সাধারণ) সাপেক্ষে অডিও-ভিডিও বা অন্য কোনো ইলেকট্রনিক পদ্ধতিতে বিচারপ্রার্থীরা বা তাদের আইনজীবী বা সংশ্লিষ্ট অন্য ব্যক্তি বা সাক্ষীদের ভার্চ্যুয়াল উপস্থিতি নিশ্চিতকরণে যেকোনো মামলার বিচার বিচারিক অনুসন্ধান বা দরখাস্ত বা রায় প্রদান করতে পারবে বলে আইনের ৩ ধারায় বলা হয়েছে।

বিলের উদ্দেশে ও কারণ সম্পর্কে বলা হয়েছে- বিদ্যমান আইনের বিধান অনুযায়ী আদালতে মামলার পক্ষরা বা তাদের নিযুক্ত বিজ্ঞ আইনজীবীদের এবং সাক্ষীদের স্বশরীরে উপস্থিতির মাধ্যমে মামলার বিচার কার্যক্রম সম্পন্ন করা হয়ে থাকে। সমগ্র বিশ্বের মতো বাংলাদেশেও কোভিড-১৯ মহামারি রোধকল্পে মাসাধিককাল ধরে কতিপয় ব্যতিক্রম ব্যতীত দেশের সব আদালত ও সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানসমূহে সাধারণ ছুটি ঘোষণাসহ জনসমাগম হয় এরূপ কর্মকাণ্ড নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়।

বিলে আরও বলা হয়- বর্তমানে আদালতসহ সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানসমূহ খুলে দেওয়া হলেও কোভিড-১৯ মহামারি রোধকল্পে অধিকতর জনসমাগমকে নিরুসাহিত করা হয়েছে। এ পরিস্থিতিতে দেশের সব আদালতে বিচার কার্যক্রম অব্যাহত রাখার সুবিধার্থে ভিডিও কনফারেন্সিংসহ অন্য ডিজিটাল মাধ্যমে বিচারপ্রার্থী সব পক্ষ বা তাদের আইনজীবী বা সংশ্লিষ্ট অন্য ব্যক্তি বা সাক্ষীদের ভার্চ্যুয়াল উপস্থিতি নিশ্চিতক্রমে মামলার বিচার বিচারিক অনুসন্ধান দরখাস্ত বা আপিল শুনানি বা সাক্ষ্যগ্রহণ বা যুক্তিতর্কগ্রহণ বা আদেশ বা রায় প্রদানের সুযোগ সৃষ্টির জন্য আইন প্রণয়ন করা প্রয়োজন।

এর ফলে বিদ্যমান সংকটে ভিডিও কনফারেন্সিংসহ অন্য ডিজিটাল মাধ্যমে বিচারপ্রার্থী সব পক্ষ বা তাদের আইনজীবী বা সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি বা সাক্ষীদের ভার্চ্যুয়াল উপস্থিতি নিশ্চিত করে বিচার কার্য পরিচালনা করা যাবে।

মন্তব্য করুন

সর্বশেষ নিউজ

আরো পড়ুন