শনিবার, ৪ জুলাই ২০২০, ৫:৩২ পিএম

করণ জোহর বলিউডের ‘মুভি মাফিয়া’: কঙ্গনা

বিনোদন ডেস্ক :
প্রকাশিত: ৫:৪৯ অপরাহ্ন, ২২ জুন ২০২০, সোমবার


করণ জোহর বলিউডের ‘মুভি মাফিয়া’: কঙ্গনা

ফাইল ফটো

স্পষ্টবক্তা ও প্রতিবাদী হিসেবে বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে সুনামের পাশাপাশি যথেষ্ট দুর্নামও রয়েছে অভিনেত্রী কঙ্গনা রনাউতের। যার কারণে বিভিন্ন সময়েই সমস্যার মুখে পড়েছিলেন তিনি।

সুশান্ত সিং রাজপুতের অকালমৃত্যুর পর তীব্র ভাষায় সোচ্চার হয়ে এখনও নিজের ভাবমূর্তি ধরে রেখেছেন পর্দার এই নায়িকা। নেপোটিজমের প্রশ্নে বহু দিন ধরেই সোচ্চার তিনি। এর আগে সরাসরি তিনি নির্মাতা ও প্রযোজক করণ জোহরকে অভিযুক্ত করেছিলেন। সেই টক শো-এর অংশবিশেষ এখন ভাইরাল।

সেখানে কঙ্গনার সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন সাইফ আলি খানও। কথা প্রসঙ্গে কঙ্গনা বলেন, তাঁর বায়োপিক হলে করণ সেখানে থাকবেন ‘মুভি মাফিয়া’ হিসেবে। যিনি ইন্ডাস্ট্রিতে নবাগতদের কাজ করতে দেন না। তাঁর মতে করণই বলিউডে নেপোটিজম নীতির ধারক ও বাহক, প্রকাশ্যেই কথাগুলো বলেন বলিউড সিনেমার এ কুইন।

সুশান্ত সিংহ রাজপুতের মৃত্যু নিয়েও কারও নাম না নিয়ে করণ জোহর ও তাঁর অনুগামীদের দিকেই অভিযোগের আঙুল তুলেছেন কঙ্গনা। তাঁর অভিযোগ, ‘কাই পো চে’, ‘এম এস ধোনি: দ্য আনটোল্ড স্টোরি’ এবং ‘ছিছোড়ে’র মতো ছবি করা সত্ত্বেও বলিউড সুশান্তকে স্বীকৃতি দেয়নি।

নেপোটিজমকারীরা সুশান্তকে ধর্তব্যের মধ্যেই আনতে চাননি। সেই হতাশা থেকেই এমন চরম পদক্ষেপ করতে বাধ্য হয়েছেন সুশান্ত, যা কার্যত খুনই, বলছেন কঙ্গনা।

সুশান্তের অপমৃত্যুকে কার্যত খুন হিসেবেই দেখছেন কঙ্গনা। তাঁর কথায়, ইন্ডাস্ট্রিতে নিজেকে উচ্ছিষ্ট বলে মনে করতেন সুশান্ত। মাত্র চৌত্রিশেই শেষ হয়ে যাওয়ার সঙ্গে কি এর কোনও সম্পর্ক নেই? জানতে চেয়েছেন কঙ্গনা।

শুধু সুশান্তকেই নয়। কঙ্গনাকেও একসময় আত্মহত্যার পথে ঠেলে দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছিল। জাভেদ আখতারের বিরুদ্ধে এমনই বিস্ফোরক অভিযোগও আনেন কঙ্গনা। সে সময় হৃতিক তথা রোশন পরিবারের সঙ্গে তিক্ততা চরমে পৌঁছেছিল কঙ্গনার। জীবনের সেই দুঃসময়ে তথাকথিত হিতৈষীরা তাঁকে আত্মহত্যার উস্কানি দিতেন বলে দাবি কঙ্গনার।

জাভেদ আখতার নাকি বলেছিলেন, ক্ষমা না চাইলে ক্ষমতাবান রোশন পরিবার তাঁকে জেলে পাঠাবে। তখন অত্মহত্যা করা ছাড়া কঙ্গনার আর পথ থাকবে না!

মন্তব্য করুন

সর্বশেষ নিউজ

আরো পড়ুন