রোববার, ৫ জুলাই ২০২০, ১২:২০ পিএম

করোনার গ্রীন জোনে নাটোর, নো-মাস্ক, নো-সার্ভিস, নো-সেল

আমিরুল ইসলাম, নাটোর জেলা প্রতিনিধি:
প্রকাশিত: ৯:০৪ অপরাহ্ন, ১৮ জুন ২০২০, বৃহস্পতিবার


করোনার গ্রীন জোনে নাটোর, নো-মাস্ক, নো-সার্ভিস, নো-সেল

করোনার গ্রীন জোনে নাটোর, নো-মাস্ক, নো-সার্ভিস, নো-সেল

এখন থেকে ঘরের বাইরে মাস্ক ছাড়া কোন কাজ কেউ করতে পারবেন না। কোন দোকারদার মাস্ক বিহীন থাকতে পারবেন না, মাস্ক ছাড়া কোন ক্রেতার কাছে পন্য বিক্রি করতে পারবেনা না। অর্থাত নো মাস্ক, নো সার্ভিস, নো মাস্ক নো সেল। এ অবস্থায় রোববার থেকে নাটোর জেলায় শুরু হবে করোনা প্রতিরোধ সপ্তাহ।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলা প্রশাসক মোহম্মদ শাহরিয়াজের সভাপতিত্বে করোনা প্রতিরোধ কমিটির সভায় এ নিদ্ধান্ত নেয়া হয়।বিষয়টি মনিটর করতে মাঠে থাকবে ভ্রাম্যমান আদালত।আইন অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে নেয়া হবে আইনগত ব্যবস্থা।

সভায় সিভিল সার্জন,ডা.কাজী মিজানুর রহমান, পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা.মেজর কামরুল, কৃষি বিভাগের উপ পরিচালক সুব্রত কুমার সরকার, পৌর মেয়র উমা চৌধুরী জলি, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান শরিফুল ইসলাম রমজান ও জেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা.মোহম্মদ গোলাম মোস্তফা উপস্থিত ছিলেন।

নাটোর জেলায় করোনা সংক্রমিত রোগীর সংখ্যা দিন দিন বাড়তে থাকায় তা প্রতিরোধে আরো কঠোর অবস্থান নেয়ার পাশাপাশি জনগণকে সচেতন করতে পালন করা হবে করোনা প্রতিরোধ সপ্তাহ জানালেন জেলা প্রশাসক মোহম্মদ শাহরিয়াজ।

এদিকে নাটোর জেলা এখনো গ্রীন জোনে রয়েছে বলে জানান সিভিল সার্জন ডাঃ কাজী মিজানুর রহমান।

১৪ দিন পর পর আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা হার বিবেচনায় সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। তবে এ জেলায় প্রতিদিন করোনা রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় দ্রুত অবস্থানের পরিবর্তন হতে পারে বলে শংকা প্রকাশ করে সবাইকে স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলার আহবান জানান জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের প্রধান।

গতকাল পর্যন্ত নাটোর জেলার করোনা সংক্রমিত রোগীর সংখ্যা ছিল ৯৬ জনে। সুস্থ্য হয়েছেন ৫১ জন।সে হিসাবে আক্রান্ত অবস্থায় ছিল ৪৫ জন।

মন্তব্য করুন

সর্বশেষ নিউজ

আরো পড়ুন