২৩, সেপ্টেম্বর, ২০১৯, সোমবার | | ২৩ মুহররম ১৪৪১


একাধিক অভিযোগের বিরুদ্ধে মুখ খুললেন রাব্বানী

রিপোর্টার নামঃ স্টাফ রিপোর্টার: | আপডেট: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৬:০৬ পিএম

একাধিক অভিযোগের বিরুদ্ধে মুখ খুললেন রাব্বানী
একাধিক অভিযোগের বিরুদ্ধে মুখ খুললেন রাব্বানী

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের বর্তমান নেতৃত্ব নিয়ে ক্ষুব্ধ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তাদের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতেই এই ক্ষোভের জন্ম। তবে এবার এ বিষয়ে মুখ খুললেন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী। তার দাবি প্রধানমন্ত্রীর কাছে সঠিক বার্তা পৌঁছায়নি। 

বৃহস্পতিবার (১২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) কার্যালয়ের সামনে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ কথা বলেন তিনি। 

তবে জাতির জনক বঙ্গুবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ভুলত্রুটি গুছিয়ে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ নতুন মোড়কে আসবে বলেও জানিয়েছেন সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী। 

রাব্বানী বলেন, বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর আর মাত্র চার মাস বাকি আছে। তার মধ্যে ভুলত্রুটি গুছিয়ে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ নতুন মোড়কে আসবে।

সম্প্রতি ছাত্রলীগের বর্তমান নেতৃত্বের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ উঠায় ক্ষুব্ধ স্বয়ং আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বর্তমান সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক শোভন-রাব্বানীর নেতিবাচক কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে ইতোমধ্যেই জিরো টলারেন্স মনোভাব প্রকাশ করেছেন তিনি। তাই সম্মেলনের পূর্বেই শোভন-রাব্বানীর পরিবর্তে আসতে পারে ভারপ্রাপ্ত নেতৃত্ব এমনও গুঞ্জন এখন শোনা যাচ্ছে।

গত শনিবার রাতে গণভবনে আওয়ামী লীগের সংসদীয় ও স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের যৌথ সভায় প্রধানমন্ত্রী ছাত্রলীগ সভাপতি-সম্পাদকের ওপর নিজের ক্ষোভের কথা জানান। তাদের বেশ কিছু অপকর্মের কথা দলীয় নেতাদের সামনে তুলে ধরেন। ওইদিনই প্রধানমন্ত্রী তাদের গণভবনে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দেন।

সেদিন ছাত্রলীগের দুই নেতাও গণভবনে উপস্থিত ছিলেন। আওয়ামী লীগ নেতাদের পরামর্শে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ না করেই তারা গণভবন ত্যাগ করেন। পরদিন রবিবার সন্ধ্যা ও সোমবার সকালেও তারা গণভবনে যান। পরে গতকাল থেকে কার্যকর হয়েছে গণভবনে তাদের নিষেধাজ্ঞা।

তবে ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ উঠলেও দলের সাধারণ সম্পাদক রাব্বানী এবার দাবি করেছেন, প্রধানমন্ত্রীর কাছে তাদের বিষয়ে সঠিক বার্তা পৌঁছায়নি।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমাদের বিষয়ে সঠিক বার্তা পৌঁছেনি। আমাদের অবস্থান থেকে আমরা স্বচ্ছ আছি। যদি তিনি চান আমাদের বিষয়টি আমরা ব্যাখ্যা দিতে প্রস্তুত আছি। যা রটে তার কিছুটা ঘটে। তিনি আমাদের অভিভাবক, আমাদের মা। আশা করি প্রধানমন্ত্রী আমাদের ভুলত্রুটিগুলো ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন।

একাধিক অভিযোগের বিরুদ্ধে মুখ খুললেন রাব্বানী

প্রতিবেদক নাম: স্টাফ রিপোর্টার: ,

প্রকাশের সময়ঃ ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৬:০৬ পিএম

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের বর্তমান নেতৃত্ব নিয়ে ক্ষুব্ধ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তাদের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতেই এই ক্ষোভের জন্ম। তবে এবার এ বিষয়ে মুখ খুললেন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী। তার দাবি প্রধানমন্ত্রীর কাছে সঠিক বার্তা পৌঁছায়নি। 

বৃহস্পতিবার (১২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) কার্যালয়ের সামনে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ কথা বলেন তিনি। 

তবে জাতির জনক বঙ্গুবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ভুলত্রুটি গুছিয়ে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ নতুন মোড়কে আসবে বলেও জানিয়েছেন সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী। 

রাব্বানী বলেন, বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর আর মাত্র চার মাস বাকি আছে। তার মধ্যে ভুলত্রুটি গুছিয়ে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ নতুন মোড়কে আসবে।

সম্প্রতি ছাত্রলীগের বর্তমান নেতৃত্বের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ উঠায় ক্ষুব্ধ স্বয়ং আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বর্তমান সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক শোভন-রাব্বানীর নেতিবাচক কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে ইতোমধ্যেই জিরো টলারেন্স মনোভাব প্রকাশ করেছেন তিনি। তাই সম্মেলনের পূর্বেই শোভন-রাব্বানীর পরিবর্তে আসতে পারে ভারপ্রাপ্ত নেতৃত্ব এমনও গুঞ্জন এখন শোনা যাচ্ছে।

গত শনিবার রাতে গণভবনে আওয়ামী লীগের সংসদীয় ও স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের যৌথ সভায় প্রধানমন্ত্রী ছাত্রলীগ সভাপতি-সম্পাদকের ওপর নিজের ক্ষোভের কথা জানান। তাদের বেশ কিছু অপকর্মের কথা দলীয় নেতাদের সামনে তুলে ধরেন। ওইদিনই প্রধানমন্ত্রী তাদের গণভবনে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দেন।

সেদিন ছাত্রলীগের দুই নেতাও গণভবনে উপস্থিত ছিলেন। আওয়ামী লীগ নেতাদের পরামর্শে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ না করেই তারা গণভবন ত্যাগ করেন। পরদিন রবিবার সন্ধ্যা ও সোমবার সকালেও তারা গণভবনে যান। পরে গতকাল থেকে কার্যকর হয়েছে গণভবনে তাদের নিষেধাজ্ঞা।

তবে ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ উঠলেও দলের সাধারণ সম্পাদক রাব্বানী এবার দাবি করেছেন, প্রধানমন্ত্রীর কাছে তাদের বিষয়ে সঠিক বার্তা পৌঁছায়নি।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমাদের বিষয়ে সঠিক বার্তা পৌঁছেনি। আমাদের অবস্থান থেকে আমরা স্বচ্ছ আছি। যদি তিনি চান আমাদের বিষয়টি আমরা ব্যাখ্যা দিতে প্রস্তুত আছি। যা রটে তার কিছুটা ঘটে। তিনি আমাদের অভিভাবক, আমাদের মা। আশা করি প্রধানমন্ত্রী আমাদের ভুলত্রুটিগুলো ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন।