২২, সেপ্টেম্বর, ২০১৯, রোববার | | ২২ মুহররম ১৪৪১


পিরোজপুরে ‘কিশোর গ্যাং’র ৯২ জন আটক

রিপোর্টার নামঃ জেলা প্রতিনিধি | আপডেট: ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৯:৩৫ পিএম

পিরোজপুরে ‘কিশোর গ্যাং’র ৯২ জন আটক
পুলিশের অভিযানে কিশোর গ্যাংয়ের আটককৃতদের একাংশ।

পিরোজপুরের বিভিন্ন উপজেলায় বিশেষ অভিযানে কিশোর গ্যাংয়ের মোট ৯২ জনকে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার দিবাগত রাত ৮টা থেকে ১১টা পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। তাৎক্ষণিকভাবে আটককৃতদের নাম জানা যায়নি।

বিষয়টি নিশ্চিত করে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোল্লা আজাদ হোসেন জানান, শহরের বিভিন্ন স্থানে রাতে স্কুল ও কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা পড়াশোনা রেখে বাইরে আড্ডা দেয়। সেখান থেকে যেন কোনো অপরাধ সংগঠিত হতে না পারে- এজন্যই পিরোজপুরের পুলিশ সুপার হায়াতুল ইসলাম খান নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালিত হয়। এ সময় কিশোর গ্যাংয়ের ৯২ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

তিনি বলেন, আটককৃতদের মধ্যে পিরোজপুরর সদর উপজেলা হতে ৩০ জন, নাজিরপুর উপজেলা থেকে ২২ জন, ভান্ডারিয়া উপজেলা হতে ১৭ জন, মঠবাড়ীয়া উপজেলা থেকে আটজনন, ইন্দুরকানী উপজেলা থেকে একজন, কাউখালী থেকে চারজন এবং নেছারাবাদ উপজেলা হতে ১০ জনসহ মোট ৯২ জনকে আটক করা হয়।

পুলিশ সুপার হায়াতুল ইসলাম খান সাংবাদিকদের জানান, গ্যাং কালচার একটি অপরাধের নতুন মাত্রা। কিশোর অপরাধীরা বিভিন্ন ক্ষেত্রে বড় বড় অপরাধের সঙ্গে যুক্ত হচ্ছে। পিরোজপুর জেলায় কোনো কিশোর গ্যাং লিডার সৃষ্টি হতে দেওয়া হবে না। আজ থেকে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

আপনার সন্তান কোথায় থাকে কার সঙ্গে আড্ডা দেয় এবং প্রয়োজন ছাড়া রাতে বাইরে থাকে কি না- সেদিকে নজর রাখতে অভিভাবকদের প্রতি আহবান জানান পুলিশ সুপার। একই সঙ্গে কিশোর গ্যাংয়ে যাতে কেউ সম্পৃক্ত হতে না পারে সে ব্যাপারে সজাগ থাকার আহ্বান জানান তিনি।

পুলিশ সুপার বলেন, উঠতি বয়সের ছেলেমেয়েরা যাতে মাদক, সন্ত্রাস, ইভটিজিংসহ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নানা অপরাধে লিপ্ত না হতে পারে, এজন্য অভিভাবক ও সমাজের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের সজাগ দৃষ্টি রাখতে হবে। এ বিষয়ে নিরাপত্তা বাহিনী যথেষ্ট সজাগ। কিশোর হলেও আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

অভিযানে পিরোজপুরের জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও প্রশাসন) মোল্লা আজাদ হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আহমাদ মাঈনুল হাসান, অফিসার ইনচার্জ সদর থানা, ওসি ডিবিসহ জেলা পুলিশের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

পিরোজপুরে ‘কিশোর গ্যাং’র ৯২ জন আটক

প্রতিবেদক নাম: জেলা প্রতিনিধি ,

প্রকাশের সময়ঃ ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৯:৩৫ পিএম

পিরোজপুরের বিভিন্ন উপজেলায় বিশেষ অভিযানে কিশোর গ্যাংয়ের মোট ৯২ জনকে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার দিবাগত রাত ৮টা থেকে ১১টা পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। তাৎক্ষণিকভাবে আটককৃতদের নাম জানা যায়নি।

বিষয়টি নিশ্চিত করে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোল্লা আজাদ হোসেন জানান, শহরের বিভিন্ন স্থানে রাতে স্কুল ও কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা পড়াশোনা রেখে বাইরে আড্ডা দেয়। সেখান থেকে যেন কোনো অপরাধ সংগঠিত হতে না পারে- এজন্যই পিরোজপুরের পুলিশ সুপার হায়াতুল ইসলাম খান নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালিত হয়। এ সময় কিশোর গ্যাংয়ের ৯২ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

তিনি বলেন, আটককৃতদের মধ্যে পিরোজপুরর সদর উপজেলা হতে ৩০ জন, নাজিরপুর উপজেলা থেকে ২২ জন, ভান্ডারিয়া উপজেলা হতে ১৭ জন, মঠবাড়ীয়া উপজেলা থেকে আটজনন, ইন্দুরকানী উপজেলা থেকে একজন, কাউখালী থেকে চারজন এবং নেছারাবাদ উপজেলা হতে ১০ জনসহ মোট ৯২ জনকে আটক করা হয়।

পুলিশ সুপার হায়াতুল ইসলাম খান সাংবাদিকদের জানান, গ্যাং কালচার একটি অপরাধের নতুন মাত্রা। কিশোর অপরাধীরা বিভিন্ন ক্ষেত্রে বড় বড় অপরাধের সঙ্গে যুক্ত হচ্ছে। পিরোজপুর জেলায় কোনো কিশোর গ্যাং লিডার সৃষ্টি হতে দেওয়া হবে না। আজ থেকে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

আপনার সন্তান কোথায় থাকে কার সঙ্গে আড্ডা দেয় এবং প্রয়োজন ছাড়া রাতে বাইরে থাকে কি না- সেদিকে নজর রাখতে অভিভাবকদের প্রতি আহবান জানান পুলিশ সুপার। একই সঙ্গে কিশোর গ্যাংয়ে যাতে কেউ সম্পৃক্ত হতে না পারে সে ব্যাপারে সজাগ থাকার আহ্বান জানান তিনি।

পুলিশ সুপার বলেন, উঠতি বয়সের ছেলেমেয়েরা যাতে মাদক, সন্ত্রাস, ইভটিজিংসহ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নানা অপরাধে লিপ্ত না হতে পারে, এজন্য অভিভাবক ও সমাজের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের সজাগ দৃষ্টি রাখতে হবে। এ বিষয়ে নিরাপত্তা বাহিনী যথেষ্ট সজাগ। কিশোর হলেও আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

অভিযানে পিরোজপুরের জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও প্রশাসন) মোল্লা আজাদ হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আহমাদ মাঈনুল হাসান, অফিসার ইনচার্জ সদর থানা, ওসি ডিবিসহ জেলা পুলিশের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।