২২, সেপ্টেম্বর, ২০১৯, রোববার | | ২২ মুহররম ১৪৪১


হাইকোর্টের আগামীকালের কার্যতালিকায় খালেদার জামিন আবেদন

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায়

রিপোর্টার নামঃ প্রতিদিনের কাগজ | আপডেট: ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৮:৪৩ পিএম

হাইকোর্টের আগামীকালের কার্যতালিকায় খালেদার জামিন আবেদন
হাইকোর্টের আগামীকালের কার্যতালিকায় খালেদার জামিন আবেদন

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় সাবেক প্রধানমন্ত্রী বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার করা জামিনের আবেদন শুনানির জন্য হাইকোর্টের কার্যতালিকাভুক্ত করা হয়েছে। আগামীকাল বুধবার বিচারপতি ফরিদ আহমেদ ও বিচারপতি এ এস এম আব্দুল মোবিনের হাইকোর্ট বেঞ্চের কার্যতালিকার ৩৭৪ নম্বরে রয়েছে। সুপ্রিম কোর্টের আজ মঙ্গলবারের ওয়েবসাইটে এ কার্যতালিকা প্রকাশিত হয়েছে। হাইকোর্টের কার্যতালিকায় থাকার তথ্য নিশ্চিত করেন খালেদা জিয়ার আইনজীবী ব্যারিস্টার এ কে এম এহসানুর রহমান।

গত ৩ সেপ্টেম্বর হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন দাখিল করা হয়। গত ৮ সেপ্টেম্বর ওই আদালত খালেদা জিয়ার জামিনের আবেদনটি শুনানির জন্য গ্রহন করেন। এর আগে গত ৩১ জুলাই হাইকোর্ট খালেদা জিয়ার জামিনের আবেদন খারিজ করে রায় দেন। এ অবস্থায় অসুস্থতার যুক্তি দেখিয়ে আবারো জামিনের আবেদন করা হয়েছে।

সুপ্রিম কোর্ট ও নিম্ন আদালত মিলে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে এখন ১৭টি মামলা বিচারাধীন। এর মধ্যে দুটি মামলায় (জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলা) জামিন পেলেই খালেদা জিয়া কারাগার থেকে মুক্তি পাবেন। এই দুই মামলায় তার ১৭ বছরের কারাদণ্ড হয়েছে। এর মধ্যে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ১০ বছরের সাজার বিরুদ্ধে করা আপিল আপিল বিভাগে বিচারাধীন। আর জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় নিম্ন আদালতের ৭ বছরের সাজার বিরুদ্ধে করা আপিল হাইকোর্টে বিচারাধীন।

হাইকোর্টের আগামীকালের কার্যতালিকায় খালেদার জামিন আবেদন

প্রতিবেদক নাম: প্রতিদিনের কাগজ ,

প্রকাশের সময়ঃ ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৮:৪৩ পিএম

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় সাবেক প্রধানমন্ত্রী বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার করা জামিনের আবেদন শুনানির জন্য হাইকোর্টের কার্যতালিকাভুক্ত করা হয়েছে। আগামীকাল বুধবার বিচারপতি ফরিদ আহমেদ ও বিচারপতি এ এস এম আব্দুল মোবিনের হাইকোর্ট বেঞ্চের কার্যতালিকার ৩৭৪ নম্বরে রয়েছে। সুপ্রিম কোর্টের আজ মঙ্গলবারের ওয়েবসাইটে এ কার্যতালিকা প্রকাশিত হয়েছে। হাইকোর্টের কার্যতালিকায় থাকার তথ্য নিশ্চিত করেন খালেদা জিয়ার আইনজীবী ব্যারিস্টার এ কে এম এহসানুর রহমান।

গত ৩ সেপ্টেম্বর হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন দাখিল করা হয়। গত ৮ সেপ্টেম্বর ওই আদালত খালেদা জিয়ার জামিনের আবেদনটি শুনানির জন্য গ্রহন করেন। এর আগে গত ৩১ জুলাই হাইকোর্ট খালেদা জিয়ার জামিনের আবেদন খারিজ করে রায় দেন। এ অবস্থায় অসুস্থতার যুক্তি দেখিয়ে আবারো জামিনের আবেদন করা হয়েছে।

সুপ্রিম কোর্ট ও নিম্ন আদালত মিলে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে এখন ১৭টি মামলা বিচারাধীন। এর মধ্যে দুটি মামলায় (জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলা) জামিন পেলেই খালেদা জিয়া কারাগার থেকে মুক্তি পাবেন। এই দুই মামলায় তার ১৭ বছরের কারাদণ্ড হয়েছে। এর মধ্যে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ১০ বছরের সাজার বিরুদ্ধে করা আপিল আপিল বিভাগে বিচারাধীন। আর জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় নিম্ন আদালতের ৭ বছরের সাজার বিরুদ্ধে করা আপিল হাইকোর্টে বিচারাধীন।