২৩, সেপ্টেম্বর, ২০১৯, সোমবার | | ২৩ মুহররম ১৪৪১


মাঠে নেমেই সাকিব নেই

রিপোর্টার নামঃ খেলাধুলা ডেস্ক: | আপডেট: ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৪:৫৩ পিএম

মাঠে নেমেই সাকিব নেই
মাঠে নেমেই সাকিব নেই

জয়ের দারুণ হাতছানি আফগানিস্তানের সামনে। স্লো উইকেট। লেগ স্পিনার। দু’জনই বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান। উইকেট নেয়ার জন্য স্ট্যাম্পের চারপাশেই ফিল্ডার দাঁড় করিয়ে দিলেন আফগান অধিনায়ক রশিদ খান।

খেলা হবে অন্তত ১৮.৩ ওভার। এ কারণে তাদের চেষ্টা প্রথম বল থেকেই উইকেট তুলে নেয়ার। সাকিবের চেষ্টা ছিল ঠেকিয়ে রাখার। কিন্তু প্রথম বলটি আফগান লেগি জহির খান রাখলেন একেবারে অফ স্ট্যাম্পের ওপর। সাকিব ঠেকানোর চেষ্টাই করলেন না। প্রথম বলেই মারার চেষ্টা। যেন, টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। মারতেই হবে। না হয় জেতা যাবে না। সাকিবের মানসিকতাটাই ছিল এমন।

কিন্তু জহির খানের বলটিকে খেলতেই পারলেন না সাকিব। ব্যাটের উপরের কানায় চুমা দিয়ে বলটি গিয়ে আশ্রয় নিল উইকেটরক্ষক আফসার জাজাইয়ের গ্লাভসে। উইকেপ পাওয়ার আনন্দে প্রথম বলেই মেতে উঠলো আফগানরা। আর বাংলাদেশকে চরম বিপদে রেখে বাইরে উইকেট ছেড়ে গেলেন দলনায়ক। ৫৪ বলে ৪ বাউন্ডারিতে গড়া তার ৪৪ রানের ইনিংসটির অপমৃত্যু তাতেই।

চট্টগ্রাম টেস্টে এখন বাংলাদেশ আর আফগানিস্তানের মধ্যে দুই রকম চিন্তা ভাবনা। আফগানিস্তানের খেলোয়াড় ও সমর্থকরা চাইছেন, অন্ততপক্ষে একটি ঘণ্টা যেন খেলা হয়। বাংলাদেশ চাইছে তার উল্টো।

কেননা এই টেস্টে বড় বিপদে আছে বাংলাদেশই। চতুর্থ ইনিংসে ৩৯৮ রান তাড়া করতে নেমে বৃষ্টির কারণে ৬ উইকেটে ১৪৩ রান নিয়ে তৃতীয় সেশনে ব্যাটিংয়ে নেমেছে টাইগাররা।

মাঠে নেমেই সাকিব নেই

প্রতিবেদক নাম: খেলাধুলা ডেস্ক: ,

প্রকাশের সময়ঃ ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৪:৫৩ পিএম

জয়ের দারুণ হাতছানি আফগানিস্তানের সামনে। স্লো উইকেট। লেগ স্পিনার। দু’জনই বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান। উইকেট নেয়ার জন্য স্ট্যাম্পের চারপাশেই ফিল্ডার দাঁড় করিয়ে দিলেন আফগান অধিনায়ক রশিদ খান।

খেলা হবে অন্তত ১৮.৩ ওভার। এ কারণে তাদের চেষ্টা প্রথম বল থেকেই উইকেট তুলে নেয়ার। সাকিবের চেষ্টা ছিল ঠেকিয়ে রাখার। কিন্তু প্রথম বলটি আফগান লেগি জহির খান রাখলেন একেবারে অফ স্ট্যাম্পের ওপর। সাকিব ঠেকানোর চেষ্টাই করলেন না। প্রথম বলেই মারার চেষ্টা। যেন, টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। মারতেই হবে। না হয় জেতা যাবে না। সাকিবের মানসিকতাটাই ছিল এমন।

কিন্তু জহির খানের বলটিকে খেলতেই পারলেন না সাকিব। ব্যাটের উপরের কানায় চুমা দিয়ে বলটি গিয়ে আশ্রয় নিল উইকেটরক্ষক আফসার জাজাইয়ের গ্লাভসে। উইকেপ পাওয়ার আনন্দে প্রথম বলেই মেতে উঠলো আফগানরা। আর বাংলাদেশকে চরম বিপদে রেখে বাইরে উইকেট ছেড়ে গেলেন দলনায়ক। ৫৪ বলে ৪ বাউন্ডারিতে গড়া তার ৪৪ রানের ইনিংসটির অপমৃত্যু তাতেই।

চট্টগ্রাম টেস্টে এখন বাংলাদেশ আর আফগানিস্তানের মধ্যে দুই রকম চিন্তা ভাবনা। আফগানিস্তানের খেলোয়াড় ও সমর্থকরা চাইছেন, অন্ততপক্ষে একটি ঘণ্টা যেন খেলা হয়। বাংলাদেশ চাইছে তার উল্টো।

কেননা এই টেস্টে বড় বিপদে আছে বাংলাদেশই। চতুর্থ ইনিংসে ৩৯৮ রান তাড়া করতে নেমে বৃষ্টির কারণে ৬ উইকেটে ১৪৩ রান নিয়ে তৃতীয় সেশনে ব্যাটিংয়ে নেমেছে টাইগাররা।