২৩, ফেব্রুয়ারি, ২০২০, রোববার

নন্দীগ্রামে সাবেক কমান্ডার হাবিবুর রহমানকে লাঞ্ছিত করার প্রতিবাদে মানববন্ধন

সাব্বির হোসেন, নন্দীগ্রাম (বগুড়া) প্রতিনিধি:
প্রকাশিত: ৬:১৭ অপরাহ্ন, ১৮ ডিসেম্বর ২০১৯, বুধবার


নন্দীগ্রামে সাবেক কমান্ডার হাবিবুর রহমানকে লাঞ্ছিত করার প্রতিবাদে মানববন্ধন

বগুড়ার নন্দীগ্রামে সাবেক কমান্ডার হাবিবুর রহমানকে লাঞ্ছিত করার প্রতিবাদে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। ১৭ই ডিসেম্বর দুপুর ১২ টায় নন্দীগ্রাম উপজেলা পরিষদের সামনে এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে, গেজেটভুক্ত মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও মুক্তিযোদ্ধা টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। এরপর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়েছে, ১৬ই ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সে মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে উপজেলা নির্বাহী অফিসার উপস্থিত হওয়ার পূর্বেই শফিউল আলম ছবি চাঁদার টাকা না পাওয়ায় বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ উপজেলা ইউনিট কমান্ডের সাবেক কমান্ডার যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা হাবিবুর রহমানকে লাঞ্ছিত করে।

এতে তারা মনে করে উক্ত অনুষ্ঠানের পূর্বে একজন যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাকে লাঞ্ছিত করা মানে বাংলাদেশের সকল মুক্তিযোদ্ধাগণকে লাঞ্ছিত করা হয়েছে। শুধু তাই নয় সমগ্র জাতিকে কলঙ্কিত করা হয়। তাই গেজেডভুক্ত মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও মুক্তিযোদ্ধা টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা শফিউল আলম ছবির উক্ত ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছে।

মুক্তিযোদ্ধা হাবিবুর রহমানের সাথে কথা বললে তিনি বলেন, শফিউল আলম ছবি আমার নিকট থেকে চাঁদা দাবি করে। চাঁদার টাকা না দেয়ায় সে আমাকে লাঞ্ছিত করেছে। উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি শফিউল আলম ছবির সাথে কথা বললে তিনি বলেন, আমি কখনোই চাঁদার দাবি করিনি। হাবিবুর রহমান ২৬ জন ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা সৃষ্টি করে সুবিধা গ্রহণ করায় এ অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেছে।

মন্তব্য করুন

খবর অনুসন্ধান

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯  

সর্বশেষ নিউজ

আরো পড়ুন

Shares