২৩, ফেব্রুয়ারি, ২০২০, রোববার

বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে চেয়ার জোটেনি মুক্তিযোদ্ধার

জেলা প্রতিনিধি :
প্রকাশিত: ১১:৫০ পূর্বাহ্ন, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার


বকশীগঞ্জে বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে চেয়ার জোটেনি মুক্তিযোদ্ধার।

বকশীগঞ্জে বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে চেয়ার জোটেনি মুক্তিযোদ্ধার।

নানা অঘটনের মধ্য দিয়ে বকশীগঞ্জে মহান বিজয় দিবস পালিত হয়েছে। এসবের মধ্যে রয়েছে শিক্ষক তালাবদ্ধ, বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে ফুল না দেওয়া, বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল পরিস্কার না করা, মুক্তিযোদ্ধাকে চেয়ারে বসার সুযোগ না দেওয়া।

বিজয় দিবসে বকশীগঞ্জ সরকারি কিয়ামত উল্লাহ কলেজের শিক্ষকের দুই গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয়েছে। ছাত্রলীগ নেতার বক্তব্যকে কেন্দ্র করে ওই ঘটনা ঘটে। ঘটনার জের ধরে কলেজের একটি কক্ষে কলেজ শিক্ষক হাবিবুর রহমান, শাহ আলম, মিন্টু চন্দ্র দে, রবিউল ইসলাম ও আশরাফ হোসাইনসহ ১৪জন শিক্ষককে তালাবদ্ধ করে রাখা হয়। ঘটনার খবর পেয়ে বকশীগঞ্জ থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।

বকশীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ হযরত আলী তালা খুলে কলেজ কক্ষে অবরুদ্ধ ১৪ জন শিক্ষককে উদ্ধার করেন। একই সময় কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ একেএম জাহিদুল আলমও লাঞ্ছিত হন।

মহান বিজয় দিবসে বকশীগঞ্জ মুক্তিযোদ্ধা ভবন ছিলো খুবই নোংরা। মুক্তিযোদ্ধা ভবনের সামনে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল ছিলো আগাছায় ভরা। বিজয় দিবসে কেউ ফুল দেননি বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে। মুক্তিযোদ্ধা ভবনে জাতীয় ও সংগঠনের নিজস্ব পতাকাও উত্তোলন হয়েছে বিলম্বে।

আরও পড়ুন: পায়ে জুতা পরে শহীদ মিনারে কলেজের অধ্যক্ষ!

চেয়ারে বসার সুযোগ না পেয়ে একজন মুক্তিযোদ্ধা মাটিতে বসে বিজয় দিবসের অনুষ্ঠান উপভোগ করেছেন। ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবসে বকশীগঞ্জ এনএম হাইস্কুল মাঠের কেন্দ্রীয় অনুষ্ঠানে এই ঘটনা ঘটে।

মন্তব্য করুন

খবর অনুসন্ধান

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯  

সর্বশেষ নিউজ

আরো পড়ুন

Shares