১৭, আগস্ট, ২০১৯, শনিবার | | ১৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০


কেকেআরের জন্য পন্টিংকে চাইছেন শাহরুখ

রিপোর্টার নামঃ খেলাধুলা ডেস্ক: | আপডেট: ০৯ আগস্ট ২০১৯, ০৮:২০ পিএম

কেকেআরের জন্য পন্টিংকে চাইছেন শাহরুখ
কেকেআরের জন্য পন্টিংকে চাইছেন শাহরুখ

কলকাতা নাইট রাইডার্সের (কেকেআর) লক্ষ্য ছিল ইংল্যান্ডের বিশ্বকাপজয়ী কোচ ট্রেভির বেলিসকে। সবকিছু ঠিকঠাকও হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু সানরাইজার্স হায়দরাবাদ ছোঁ মেরে বেলিসকে কেড়ে নিয়ে গেছে। আর এতেই ভুন্ডুল হয়ে যায় কেকেআরের যাবতীয় পরিকল্পনা। এখন তাদের নতুন করে ভাবতে হচ্ছে। কেকেআরের কর্ণধার বলিউড বাদশা শাহরুখ খান এখন চাইছেন এককালে তার দলেই খেলা রিকি পন্টিংকে।

ক্রিকেটার পন্টিংয়ের আইপিএল যাত্রা শুরু হয়েছিল কেকেআর থেকেই। কোচ হিসেবে ফিরলে দারুণ এক প্রত্যাবর্তন কাহিনি লেখা হতে পারে ইডেনের সবুজ গালিচায়।

এই মুহূর্তে কেকেআরের পক্ষ থেকে কেউ এ নিয়ে মুখ খুলতে চাইছেন না। তবে শাহরুখের দলের শীর্ষমহল থেকে জোরালো ইঙ্গিত পাওয়া গেছে যে, পন্টিংই এখন কোচ হিসেবে নাইট কর্তাদের চোখে এক নম্বর পছন্দ। তাঁর সঙ্গে কথাবার্তাও শুরু হয়েছে। গত বছর পন্টিং ছিলেন দিল্লি ক্যাপিটালসের প্রধান কোচ। উপদেষ্টা হিসেবে সেই দলে ছিলেন সৌরভ গাঙ্গুলি।

নাইট কর্তারা যদি পন্টিংকে নিতে চান, দিল্লি থেকে ছিনিয়ে আনতে হবে। শোনা যাচ্ছে, তাতেও দমে যাচ্ছেন না তাঁরা। গত বছর আইপিএলে ভালো করতে না পারায় মরিয়া নাইট কর্তারা সর্বাত্মক ভাবে পন্টিংয়ের জন্য ঝাঁপাতে প্রস্তুত।

জানা গেছে, কেকেআরের শীর্ষমহল পন্টিংকে বাজিয়ে দেখতে শুরু করেছে এবং প্রাথমিক কথাবার্তার ফল খুব নেতিবাচক নয়। তবে পন্টিং দিল্লির কর্তাদের সঙ্গে আলোচনায় বসলে আবার পরিস্থিতি ঘুরে যাবে কি না, সেটাও দেখার। গত বছর তরুণ দল নিয়ে ভাল করার পরে দিল্লি ক্যাপিটালসও কি সহজে তাঁকে ছেড়ে দিতে চাইবে?

২০১৫ থেকে কেকেআরের কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করা জ্যাক কালিসের সঙ্গে এ বছরই ছাড়াছাড়ি হয় নাইটদের। গত বছরের আইপিএলে একেবারেই প্রত্যাশিত ফল করতে পারেনি কেকেআর। সঙ্গে সহকারী কোচ সাইমন ক্যাটিচকেও তাই বিদায় জানানো হয়।

গত বছর আইপিএল চলাকালীন এমনও শোনা গিয়েছিল যে, দলের মধ্যে তীব্র মতপার্থক্যের চোরা স্রোত চলছে। আন্দ্রে রাসেলের মতো তারকা বার বার সংবাদ সম্মেলনে এসে প্রকাশ্যে অসন্তোষ প্রকাশ করে গিয়েছেন তাঁর ব্যাটিং অর্ডার নিয়ে।

ক্যারিবিয়ান অলরাউন্ডার এবং কেকেআরের সেরা ম্যাচউইনার উপরের দিকে ব্যাট করতে চাইছিলেন। আর কেকেআর টিম ম্যানেজমেন্ট তাঁকে ক্রমাগত নীচের দিকে নামিয়ে যাচ্ছিল। রাসেলসহ দলের ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান ক্রিকেটারেরা প্রায় বিদ্রোহীই হয়ে উঠেছিলেন।

এবার অধিনায়ক দীনেশ কার্তিকের ভবিষ্যৎ কী, তা নিয়ে এখনও কেউ মুখ খোলেননি।

কেকেআরের জন্য পন্টিংকে চাইছেন শাহরুখ

প্রতিবেদক নাম: খেলাধুলা ডেস্ক: ,

প্রকাশের সময়ঃ ০৯ আগস্ট ২০১৯, ০৮:২০ পিএম

কলকাতা নাইট রাইডার্সের (কেকেআর) লক্ষ্য ছিল ইংল্যান্ডের বিশ্বকাপজয়ী কোচ ট্রেভির বেলিসকে। সবকিছু ঠিকঠাকও হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু সানরাইজার্স হায়দরাবাদ ছোঁ মেরে বেলিসকে কেড়ে নিয়ে গেছে। আর এতেই ভুন্ডুল হয়ে যায় কেকেআরের যাবতীয় পরিকল্পনা। এখন তাদের নতুন করে ভাবতে হচ্ছে। কেকেআরের কর্ণধার বলিউড বাদশা শাহরুখ খান এখন চাইছেন এককালে তার দলেই খেলা রিকি পন্টিংকে।

ক্রিকেটার পন্টিংয়ের আইপিএল যাত্রা শুরু হয়েছিল কেকেআর থেকেই। কোচ হিসেবে ফিরলে দারুণ এক প্রত্যাবর্তন কাহিনি লেখা হতে পারে ইডেনের সবুজ গালিচায়।

এই মুহূর্তে কেকেআরের পক্ষ থেকে কেউ এ নিয়ে মুখ খুলতে চাইছেন না। তবে শাহরুখের দলের শীর্ষমহল থেকে জোরালো ইঙ্গিত পাওয়া গেছে যে, পন্টিংই এখন কোচ হিসেবে নাইট কর্তাদের চোখে এক নম্বর পছন্দ। তাঁর সঙ্গে কথাবার্তাও শুরু হয়েছে। গত বছর পন্টিং ছিলেন দিল্লি ক্যাপিটালসের প্রধান কোচ। উপদেষ্টা হিসেবে সেই দলে ছিলেন সৌরভ গাঙ্গুলি।

নাইট কর্তারা যদি পন্টিংকে নিতে চান, দিল্লি থেকে ছিনিয়ে আনতে হবে। শোনা যাচ্ছে, তাতেও দমে যাচ্ছেন না তাঁরা। গত বছর আইপিএলে ভালো করতে না পারায় মরিয়া নাইট কর্তারা সর্বাত্মক ভাবে পন্টিংয়ের জন্য ঝাঁপাতে প্রস্তুত।

জানা গেছে, কেকেআরের শীর্ষমহল পন্টিংকে বাজিয়ে দেখতে শুরু করেছে এবং প্রাথমিক কথাবার্তার ফল খুব নেতিবাচক নয়। তবে পন্টিং দিল্লির কর্তাদের সঙ্গে আলোচনায় বসলে আবার পরিস্থিতি ঘুরে যাবে কি না, সেটাও দেখার। গত বছর তরুণ দল নিয়ে ভাল করার পরে দিল্লি ক্যাপিটালসও কি সহজে তাঁকে ছেড়ে দিতে চাইবে?

২০১৫ থেকে কেকেআরের কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করা জ্যাক কালিসের সঙ্গে এ বছরই ছাড়াছাড়ি হয় নাইটদের। গত বছরের আইপিএলে একেবারেই প্রত্যাশিত ফল করতে পারেনি কেকেআর। সঙ্গে সহকারী কোচ সাইমন ক্যাটিচকেও তাই বিদায় জানানো হয়।

গত বছর আইপিএল চলাকালীন এমনও শোনা গিয়েছিল যে, দলের মধ্যে তীব্র মতপার্থক্যের চোরা স্রোত চলছে। আন্দ্রে রাসেলের মতো তারকা বার বার সংবাদ সম্মেলনে এসে প্রকাশ্যে অসন্তোষ প্রকাশ করে গিয়েছেন তাঁর ব্যাটিং অর্ডার নিয়ে।

ক্যারিবিয়ান অলরাউন্ডার এবং কেকেআরের সেরা ম্যাচউইনার উপরের দিকে ব্যাট করতে চাইছিলেন। আর কেকেআর টিম ম্যানেজমেন্ট তাঁকে ক্রমাগত নীচের দিকে নামিয়ে যাচ্ছিল। রাসেলসহ দলের ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান ক্রিকেটারেরা প্রায় বিদ্রোহীই হয়ে উঠেছিলেন।

এবার অধিনায়ক দীনেশ কার্তিকের ভবিষ্যৎ কী, তা নিয়ে এখনও কেউ মুখ খোলেননি।