২৩, আগস্ট, ২০১৯, শুক্রবার | | ২১ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০


শাহজালালে দুই জাপানি নাগরিকের প্যান্টে মিলল ১২ কেজি স্বর্ণ

রিপোর্টার নামঃ স্টাফ রিপোর্টার: | আপডেট: ০৮ আগস্ট ২০১৯, ১০:৪৫ এএম

শাহজালালে দুই জাপানি নাগরিকের প্যান্টে মিলল ১২ কেজি স্বর্ণ
শাহজালালে দুই জাপানি নাগরিকের প্যান্টে মিলল ১২ কেজি স্বর্ণ

রাজধানীর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ১২ কেজি স্বর্ণসহ দুই জাপানি নাগরিক আটক করেছে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর। গতকাল বুধবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে তাদের আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন- টাকিও মিমুরা, তার পাসপোর্ট নং-TR3577296 এবং শুইচি সাতোক, তার পাসপোর্ট নং-TS 2378822। জাপানি নাগরিকের নিকট থেকে চোরাচালানের স্বর্ণ উদ্ধারের বিষয়টি বাংলাদেশে এবারই প্রথম।

শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর সূত্র জানিয়েছে, বুধবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে মালয়েশিয়া থেকে এয়ার এশিয়ার একে-৭১ ফ্লাইটে জাপানি যাত্রীর মাধ্যমে স্বর্ণ চোরাচালান হবে- এমন গোপন সংবাদে আগত যাত্রীদের ওপর নজর রাখা হয়। এক পর্যায়ে ওই দুই জাপানি নাগরিককে শনাক্ত করা হয়। পরে তারা গ্রিন চ্যানেল অতিক্রম করার পর স্বর্ণ আছে কিনা জানতে চাইলে তারা অস্বীকার করে। এ সময় ওই দুই জাপানি নাগরিকের ল্যাগেজ স্ক্যানিং করে কিছু না পাওয়ায় দেহ আর্চওয়ে করে ধাতব বস্তুর অস্তিত্বের সংকেত পাওয়া যায়।

পরে ব্যাগেজ কাউন্টারে এনে বিভিন্ন সংস্থার উপস্থিতিতে তাদের দেহ তল্লাশি করে উভয়ের হাফপ্যান্টের ভেতর দিকে বিশেষভাবে সেলাইকৃত পকেটে ৩০টি স্বর্ণবার পাওয়া যায়। উদ্ধারকৃত এসব স্বর্ণের মোট ওজন ১২ কেজি। এর আনুমানিক মূল্য প্রায় মোট মূল্য ৬ কোটি টাকা।

আটককৃত স্বর্ণের বিষয়ে কাস্টমস আইনে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। আটক যাত্রীদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা দায়ের করে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলেও জানিয়েছে বিমানবন্দরের গোয়েন্দা সূত্র।

শাহজালালে দুই জাপানি নাগরিকের প্যান্টে মিলল ১২ কেজি স্বর্ণ

প্রতিবেদক নাম: স্টাফ রিপোর্টার: ,

প্রকাশের সময়ঃ ০৮ আগস্ট ২০১৯, ১০:৪৫ এএম

রাজধানীর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ১২ কেজি স্বর্ণসহ দুই জাপানি নাগরিক আটক করেছে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর। গতকাল বুধবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে তাদের আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন- টাকিও মিমুরা, তার পাসপোর্ট নং-TR3577296 এবং শুইচি সাতোক, তার পাসপোর্ট নং-TS 2378822। জাপানি নাগরিকের নিকট থেকে চোরাচালানের স্বর্ণ উদ্ধারের বিষয়টি বাংলাদেশে এবারই প্রথম।

শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর সূত্র জানিয়েছে, বুধবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে মালয়েশিয়া থেকে এয়ার এশিয়ার একে-৭১ ফ্লাইটে জাপানি যাত্রীর মাধ্যমে স্বর্ণ চোরাচালান হবে- এমন গোপন সংবাদে আগত যাত্রীদের ওপর নজর রাখা হয়। এক পর্যায়ে ওই দুই জাপানি নাগরিককে শনাক্ত করা হয়। পরে তারা গ্রিন চ্যানেল অতিক্রম করার পর স্বর্ণ আছে কিনা জানতে চাইলে তারা অস্বীকার করে। এ সময় ওই দুই জাপানি নাগরিকের ল্যাগেজ স্ক্যানিং করে কিছু না পাওয়ায় দেহ আর্চওয়ে করে ধাতব বস্তুর অস্তিত্বের সংকেত পাওয়া যায়।

পরে ব্যাগেজ কাউন্টারে এনে বিভিন্ন সংস্থার উপস্থিতিতে তাদের দেহ তল্লাশি করে উভয়ের হাফপ্যান্টের ভেতর দিকে বিশেষভাবে সেলাইকৃত পকেটে ৩০টি স্বর্ণবার পাওয়া যায়। উদ্ধারকৃত এসব স্বর্ণের মোট ওজন ১২ কেজি। এর আনুমানিক মূল্য প্রায় মোট মূল্য ৬ কোটি টাকা।

আটককৃত স্বর্ণের বিষয়ে কাস্টমস আইনে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। আটক যাত্রীদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা দায়ের করে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলেও জানিয়েছে বিমানবন্দরের গোয়েন্দা সূত্র।