১৭, আগস্ট, ২০১৯, শনিবার | | ১৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০


ছাত্রলীগের কর্মী দিলেন সালাম, নেতা শোভন দিলেন থাপ্পড়

রিপোর্টার নামঃ নিজস্ব প্রতিবেদকঃ | আপডেট: ০৬ আগস্ট ২০১৯, ১০:১১ পিএম

ছাত্রলীগের কর্মী দিলেন সালাম, নেতা শোভন দিলেন থাপ্পড়
ছাত্রলীগের কর্মী দিলেন সালাম, নেতা শোভন দিলেন থাপ্পড়

শোকের মাস আগস্ট উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর পলাতক ছয় খুনিকে প্রতীকী ফাঁসি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) হল শাখার এক নেতাকে থাপ্পড় দিলেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন।

মঙ্গলবার বিকেলে ঢাবির টিএসসিতে এ ঘটনা ঘটে। এসময় ছাত্রলীগের কয়েকশ নেতাকর্মীর উপস্থিত ছিলেন।

ভুক্তভোগী ওই নেতার নাম দিদার মুহাম্মদ। তিনি বিজয় একাত্তর হল ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক।

প্রত্যক্ষদর্শীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হত্যার পলাতক আসামিদের কুশপুত্তলিকায় ফাঁসি দেয়ার কর্মসূচি নেয় ছাত্রলীগ। আজ মঙ্গলবার বিকাল ৫টার দিকে ওই কর্মসূচি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসিতে পালনে আগে থেকে ঘোষণা দেয় সংগঠনটি। এতে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতারা এবং বিশ্ববিদ্যলয়ের নেতা-কর্মীরা অংশগ্রহণ করতে প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। এসময় সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভনের গাড়ি এসে পৌঁছে টিএসসিতে। তখন উপস্থিত ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা তাকে প্রটোকল দিতে স্লোগান ধরে। একপর্যায়ে গাড়িতে থাকা শোভনকে সালাম দিতে গিয়ে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা গাড়ির সামনে ধাক্কা-ধাক্কি শুরু করে দেয়।

তখন শোভন গাড়ি থেকে নেমে জটলা পাকিয়ে থাকা নেতা-কর্মীদের দিকে এগিয়ে আসেন। এবং বিজয় একাত্তর হল ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক দিদার মুহাম্মদ আব্বাসকে থাপ্পড় দিয়ে সরিয়ে দেন। চোখের পলকে ঘটে যাওয়া এই দৃশ্য দেখে উপস্থিত অনেকে বোঝে উঠতে পারছিলেন না কী হয়েছে?

জানা গেছে, প্রোগ্রামে অনেককে ডিঙিয়ে সভাপতিকে আগে সালাম দিতে গিয়ে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার একটি ভিডিও ভাইরাল হয়। যাতে পাশ থেকে আরেকজন বলেন, ‘আরেকটা দেন।

ছাত্রলীগের কর্মী দিলেন সালাম, নেতা শোভন দিলেন থাপ্পড়

প্রতিবেদক নাম: নিজস্ব প্রতিবেদকঃ ,

প্রকাশের সময়ঃ ০৬ আগস্ট ২০১৯, ১০:১১ পিএম

শোকের মাস আগস্ট উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর পলাতক ছয় খুনিকে প্রতীকী ফাঁসি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) হল শাখার এক নেতাকে থাপ্পড় দিলেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন।

মঙ্গলবার বিকেলে ঢাবির টিএসসিতে এ ঘটনা ঘটে। এসময় ছাত্রলীগের কয়েকশ নেতাকর্মীর উপস্থিত ছিলেন।

ভুক্তভোগী ওই নেতার নাম দিদার মুহাম্মদ। তিনি বিজয় একাত্তর হল ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক।

প্রত্যক্ষদর্শীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হত্যার পলাতক আসামিদের কুশপুত্তলিকায় ফাঁসি দেয়ার কর্মসূচি নেয় ছাত্রলীগ। আজ মঙ্গলবার বিকাল ৫টার দিকে ওই কর্মসূচি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসিতে পালনে আগে থেকে ঘোষণা দেয় সংগঠনটি। এতে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতারা এবং বিশ্ববিদ্যলয়ের নেতা-কর্মীরা অংশগ্রহণ করতে প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। এসময় সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভনের গাড়ি এসে পৌঁছে টিএসসিতে। তখন উপস্থিত ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা তাকে প্রটোকল দিতে স্লোগান ধরে। একপর্যায়ে গাড়িতে থাকা শোভনকে সালাম দিতে গিয়ে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা গাড়ির সামনে ধাক্কা-ধাক্কি শুরু করে দেয়।

তখন শোভন গাড়ি থেকে নেমে জটলা পাকিয়ে থাকা নেতা-কর্মীদের দিকে এগিয়ে আসেন। এবং বিজয় একাত্তর হল ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক দিদার মুহাম্মদ আব্বাসকে থাপ্পড় দিয়ে সরিয়ে দেন। চোখের পলকে ঘটে যাওয়া এই দৃশ্য দেখে উপস্থিত অনেকে বোঝে উঠতে পারছিলেন না কী হয়েছে?

জানা গেছে, প্রোগ্রামে অনেককে ডিঙিয়ে সভাপতিকে আগে সালাম দিতে গিয়ে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার একটি ভিডিও ভাইরাল হয়। যাতে পাশ থেকে আরেকজন বলেন, ‘আরেকটা দেন।