১৭, আগস্ট, ২০১৯, শনিবার | | ১৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০


মিন্নির জামিন আবেদনের শুনানি পেছাল

রিপোর্টার নামঃ স্টাফ রিপোর্টার: | আপডেট: ০৬ আগস্ট ২০১৯, ০৩:৪৫ পিএম

মিন্নির জামিন আবেদনের শুনানি পেছাল
মিন্নির জামিন আবেদনের শুনানি পেছাল

বরগুনায় আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার হয়ে কারাগারে থাকা তার স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকা মিন্নির জামিন চেয়ে করা আবেদনের ওপর শুনানির দিন পিছিয়ে আগামী বৃহস্পতিবার দিন রেখেছেন হাইকোর্ট।

বিচারপতি শেখ মো. জাকির হোসেন ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের বেঞ্চে আজ মঙ্গলবার জামিন শুনানির কথা ছিল। তবে জামিন আবেদনটি শুনানির জন্য উঠলে আদালত ‘বিস্তারিত শুনানি’র কথা বলে নতুন দিন নির্ধারণ করে দেন।

মঙ্গলবার মিন্নির জামিনের আবেদনটি শুনানির জন্য কার্যতালিকার ৫৩ ক্রমিকে ছিল। এদিন মিন্নির বাবা মোজাম্মেল হোসেন কিশোরও আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

আদালতে জামিন আবেদনের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী জেড আই খান পান্না। সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী এম মাইনুল ইসলাম ও মাক্কিয়া ফাতেমা ইসলাম। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল রেজাউল করিম।

গত ২৬ জুন বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা করা হয় রিফাত শরীফকে। ওই ঘটনায় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে দেখা যায়, সাব্বির আহমেদ ওরফে নয়ন বন্ড ও রিফাত ফরাজী তাকে (রিফাত শরীফ) রামদা দিয়ে কোপাচ্ছেন। ২ জুলাই নয়ন বন্ড পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হন। পরে মামলার এজাহারভুক্ত আসামি রিফাত ফরাজী, টিকটক হৃদয়সহ বেশ কয়েকজনকে গ্রেপ্তার দেখায় পুলিশ।

একপর্যায়ে এই মামলায় রিফাত শরীফের স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকাকে গ্রেপ্তার দেখায় পুলিশ। গত ১৬ জুলাই রাতে মিন্নিকে গ্রেপ্তার করে পরদিন তাকে পাঁচ দিনের রিমান্ডে নেয় পুলিশ। রিমান্ড শেষ হওয়ার আগেই ১৯ জুলাই ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন মিন্নি। এর পর তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

পরে নিম্ন আদালতে জামিন চেয়ে একাধিকবার আবেদন করেন আয়শা সিদ্দিকা। তবে তা নাকচ হয়। পরে হাইকোর্টে জামিনের আবেদন করেন মিন্নি।

মিন্নির জামিন আবেদনের শুনানি পেছাল

প্রতিবেদক নাম: স্টাফ রিপোর্টার: ,

প্রকাশের সময়ঃ ০৬ আগস্ট ২০১৯, ০৩:৪৫ পিএম

বরগুনায় আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার হয়ে কারাগারে থাকা তার স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকা মিন্নির জামিন চেয়ে করা আবেদনের ওপর শুনানির দিন পিছিয়ে আগামী বৃহস্পতিবার দিন রেখেছেন হাইকোর্ট।

বিচারপতি শেখ মো. জাকির হোসেন ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের বেঞ্চে আজ মঙ্গলবার জামিন শুনানির কথা ছিল। তবে জামিন আবেদনটি শুনানির জন্য উঠলে আদালত ‘বিস্তারিত শুনানি’র কথা বলে নতুন দিন নির্ধারণ করে দেন।

মঙ্গলবার মিন্নির জামিনের আবেদনটি শুনানির জন্য কার্যতালিকার ৫৩ ক্রমিকে ছিল। এদিন মিন্নির বাবা মোজাম্মেল হোসেন কিশোরও আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

আদালতে জামিন আবেদনের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী জেড আই খান পান্না। সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী এম মাইনুল ইসলাম ও মাক্কিয়া ফাতেমা ইসলাম। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল রেজাউল করিম।

গত ২৬ জুন বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা করা হয় রিফাত শরীফকে। ওই ঘটনায় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে দেখা যায়, সাব্বির আহমেদ ওরফে নয়ন বন্ড ও রিফাত ফরাজী তাকে (রিফাত শরীফ) রামদা দিয়ে কোপাচ্ছেন। ২ জুলাই নয়ন বন্ড পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হন। পরে মামলার এজাহারভুক্ত আসামি রিফাত ফরাজী, টিকটক হৃদয়সহ বেশ কয়েকজনকে গ্রেপ্তার দেখায় পুলিশ।

একপর্যায়ে এই মামলায় রিফাত শরীফের স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকাকে গ্রেপ্তার দেখায় পুলিশ। গত ১৬ জুলাই রাতে মিন্নিকে গ্রেপ্তার করে পরদিন তাকে পাঁচ দিনের রিমান্ডে নেয় পুলিশ। রিমান্ড শেষ হওয়ার আগেই ১৯ জুলাই ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন মিন্নি। এর পর তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

পরে নিম্ন আদালতে জামিন চেয়ে একাধিকবার আবেদন করেন আয়শা সিদ্দিকা। তবে তা নাকচ হয়। পরে হাইকোর্টে জামিনের আবেদন করেন মিন্নি।