১৮, আগস্ট, ২০১৯, রোববার | | ১৬ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০


“কোনো স্বৈরাচার সরকার দীর্ঘ সময় টিকতে পারেনি,আওয়ামী লীগও পারবে না”

রিপোর্টার নামঃ নিজস্ব প্রতিনিধি | আপডেট: ০৪ আগস্ট ২০১৯, ০৬:৪২ পিএম

“কোনো স্বৈরাচার সরকার দীর্ঘ সময় টিকতে পারেনি,আওয়ামী লীগও পারবে না”
“কোনো স্বৈরাচার সরকার দীর্ঘ সময় টিকতে পারেনি,আওয়ামী লীগও পারবে না”

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, পৃথিবীতে কোনো স্বৈরাচার সরকারই দীর্ঘ সময় টিকে থাকতে পারেনি।  আওয়ামী লীগও পারবে না। আমাদের সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে জনগণকে সাথে নিয়ে আমাদের মাথা উচু করে দাঁড়াতে হবে। জনগণকে সঙ্গে নিয়ে এদেরকে পরাজিত করতে হবে।

আজ রবিবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে ড্যাব আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

মির্জা ফখরুল সরকারের উদ্দেশে বলেন, সময় শেষ হওয়ার আগেই এই সংসদ বাতিল করুন। এই নির্বাচন বাতিল করুন। নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নিরপেক্ষ নির্বাচনের ব্যবস্থা করুন। অন্যথায় এদেশের জনগণ জানে কিভাবে এই ধরনের সরকারকে কীভাবে পরাজিত করতে হয়।

তিনি বলেন, দেশের বিচার ব্যবস্থাকে পুরোপুরিভাবে এই অপশক্তি নিয়ন্ত্রণ করছে। এক এগারোর মূল মিশনটাই ছিল বাংলাদেশকে বিরাজনীতিকিকরণ করা। এখানে কোনো রাজনীতি থাকবে না, রাজনৈতিক শক্তিগুলোকে ধ্বংস করে দেওয়া হবে। সেই ধারাবাহিকতায় আজকে আওয়ামী লীগের সরকার সেটা বাস্তবায়ন করছে। আজকে এদেশে কোনো রাজনীতি নেই।

ড্যাবের ৩০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত এই আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনটির সভাপতি অধ্যাপক ডা. হারুন আল রশীদ। এতে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান ও ড্যাবের সাবেক মহাসচিব অধ্যাপক ডা. এজেড এম জাহিদ হোসেন, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অধ্যাপক ডা. সিরাজউদ্দীন আহমেদ, ড্যাবের মহাসচিব অধ্যাপক ডা. আব্দুস সালাম, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি কাদের গণি চৌধুরী প্রমুখ।

“কোনো স্বৈরাচার সরকার দীর্ঘ সময় টিকতে পারেনি,আওয়ামী লীগও পারবে না”

প্রতিবেদক নাম: নিজস্ব প্রতিনিধি ,

প্রকাশের সময়ঃ ০৪ আগস্ট ২০১৯, ০৬:৪২ পিএম

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, পৃথিবীতে কোনো স্বৈরাচার সরকারই দীর্ঘ সময় টিকে থাকতে পারেনি।  আওয়ামী লীগও পারবে না। আমাদের সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে জনগণকে সাথে নিয়ে আমাদের মাথা উচু করে দাঁড়াতে হবে। জনগণকে সঙ্গে নিয়ে এদেরকে পরাজিত করতে হবে।

আজ রবিবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে ড্যাব আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

মির্জা ফখরুল সরকারের উদ্দেশে বলেন, সময় শেষ হওয়ার আগেই এই সংসদ বাতিল করুন। এই নির্বাচন বাতিল করুন। নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নিরপেক্ষ নির্বাচনের ব্যবস্থা করুন। অন্যথায় এদেশের জনগণ জানে কিভাবে এই ধরনের সরকারকে কীভাবে পরাজিত করতে হয়।

তিনি বলেন, দেশের বিচার ব্যবস্থাকে পুরোপুরিভাবে এই অপশক্তি নিয়ন্ত্রণ করছে। এক এগারোর মূল মিশনটাই ছিল বাংলাদেশকে বিরাজনীতিকিকরণ করা। এখানে কোনো রাজনীতি থাকবে না, রাজনৈতিক শক্তিগুলোকে ধ্বংস করে দেওয়া হবে। সেই ধারাবাহিকতায় আজকে আওয়ামী লীগের সরকার সেটা বাস্তবায়ন করছে। আজকে এদেশে কোনো রাজনীতি নেই।

ড্যাবের ৩০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত এই আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনটির সভাপতি অধ্যাপক ডা. হারুন আল রশীদ। এতে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান ও ড্যাবের সাবেক মহাসচিব অধ্যাপক ডা. এজেড এম জাহিদ হোসেন, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অধ্যাপক ডা. সিরাজউদ্দীন আহমেদ, ড্যাবের মহাসচিব অধ্যাপক ডা. আব্দুস সালাম, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি কাদের গণি চৌধুরী প্রমুখ।