১৮, আগস্ট, ২০১৯, রোববার | | ১৬ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০


রাবিতে বিক্ষোভ মিছিল,বিভিসি ডিপ্লোমা ও প্রশিক্ষণার্থীদের নিবন্ধন বাতিলের দাবি

রিপোর্টার নামঃ আকরাম | আপডেট: ২২ জুলাই ২০১৯, ০৮:২৯ পিএম

রাবিতে বিক্ষোভ মিছিল,বিভিসি ডিপ্লোমা ও প্রশিক্ষণার্থীদের নিবন্ধন বাতিলের দাবি
ডিপ্লোমাধারী ও প্রশিক্ষণার্থীদের বাংলাদেশ ভেটেরিনারি কাউন্সিল অযৌক্তিক ভাবে রেজিস্ট্রেশন বাতিলের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেটেরিনারি এন্ড এনিমেল সায়েন্সেস বিভাগ।

বাংলাদেশ ভেটেরিনারি কাউন্সিল (বিভিসি) কর্তৃক ডিপ্লোমা ও প্রশিক্ষণার্থীদের নিবন্ধন বাতিলের দাবি জানিয়েছে রাজশাহী বিশ^বিদ্যালয়ের (রাবি) শিক্ষার্থীরা। সোমবার দুপুরে বিশ^বিদ্যালয়ের প্যারিস রোডে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশে ভেটেরিনারি এনিমেল সায়েন্সেস বিভাগের শিক্ষার্থীরা এ দাবি জানান।

বিভাগের শিক্ষার্থী জাফর রাইহান শ্রাবণের সঞ্চালনায় বক্তারা বলেন, দেশে দিনদিন প্রাণি সম্পদ বেড়েই চলেছে। এরপরও সম্প্রতি গবেষণায় দেখা গেছে, দুধে এন্টিবায়েটিকসহ সীসারমত ক্ষতিকর উপাদান মিশ্রিত হচ্ছে। এর প্রধান কারণ হচ্ছে, কয়েক মাসের ট্রেনিং প্রাপ্ত হাতুড়ে ডাক্তার অযাচিত এন্টিবায়েটিক ব্যবহারের কারণে এমনটা হচ্ছে। এছাড়াও বিভিসির ১৪ জন সদস্যের ১১ জনকে না জানিয়ে মাত্র ৩ জন গোপনে ষড়যন্ত্র করে যে আইন (বিভিসি এক্ট-১৯) সংসদে পাশ করিয়ে নেওয়া হয়েছে, তাতে জনস্বাস্থ্য মুখ থুবড়ে পড়বে। 

বক্তারা আরও বলেন, ডিএমডিসি ও বার কাউন্সিলসহ অন্যান্য কাউন্সিল যারা এমবিবিএস ও আইনজীবীদের নিবন্ধন দিয়ে থাকে, তারা তো ডিপ্লোমাদের নিবন্ধন দেয় না। তাহলে বিভিসি কেন প্যারাভেট নামক ডিপ্লোমাধারীদের নিবন্ধন দিবে ? এ সময় প্রায় শতাধিক শিক্ষার্থী বিক্ষোভ মিছিলে অংশ নেন।

রাবিতে বিক্ষোভ মিছিল,বিভিসি ডিপ্লোমা ও প্রশিক্ষণার্থীদের নিবন্ধন বাতিলের দাবি

প্রতিবেদক নাম: আকরাম ,

প্রকাশের সময়ঃ ২২ জুলাই ২০১৯, ০৮:২৯ পিএম

বাংলাদেশ ভেটেরিনারি কাউন্সিল (বিভিসি) কর্তৃক ডিপ্লোমা ও প্রশিক্ষণার্থীদের নিবন্ধন বাতিলের দাবি জানিয়েছে রাজশাহী বিশ^বিদ্যালয়ের (রাবি) শিক্ষার্থীরা। সোমবার দুপুরে বিশ^বিদ্যালয়ের প্যারিস রোডে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশে ভেটেরিনারি এনিমেল সায়েন্সেস বিভাগের শিক্ষার্থীরা এ দাবি জানান।

বিভাগের শিক্ষার্থী জাফর রাইহান শ্রাবণের সঞ্চালনায় বক্তারা বলেন, দেশে দিনদিন প্রাণি সম্পদ বেড়েই চলেছে। এরপরও সম্প্রতি গবেষণায় দেখা গেছে, দুধে এন্টিবায়েটিকসহ সীসারমত ক্ষতিকর উপাদান মিশ্রিত হচ্ছে। এর প্রধান কারণ হচ্ছে, কয়েক মাসের ট্রেনিং প্রাপ্ত হাতুড়ে ডাক্তার অযাচিত এন্টিবায়েটিক ব্যবহারের কারণে এমনটা হচ্ছে। এছাড়াও বিভিসির ১৪ জন সদস্যের ১১ জনকে না জানিয়ে মাত্র ৩ জন গোপনে ষড়যন্ত্র করে যে আইন (বিভিসি এক্ট-১৯) সংসদে পাশ করিয়ে নেওয়া হয়েছে, তাতে জনস্বাস্থ্য মুখ থুবড়ে পড়বে। 

বক্তারা আরও বলেন, ডিএমডিসি ও বার কাউন্সিলসহ অন্যান্য কাউন্সিল যারা এমবিবিএস ও আইনজীবীদের নিবন্ধন দিয়ে থাকে, তারা তো ডিপ্লোমাদের নিবন্ধন দেয় না। তাহলে বিভিসি কেন প্যারাভেট নামক ডিপ্লোমাধারীদের নিবন্ধন দিবে ? এ সময় প্রায় শতাধিক শিক্ষার্থী বিক্ষোভ মিছিলে অংশ নেন।