১৮, আগস্ট, ২০১৯, রোববার | | ১৬ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০


ঘুষের মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হলো ডিআইজি মিজানকে

রিপোর্টার নামঃ স্টাফ রিপোর্টার: | আপডেট: ২১ জুলাই ২০১৯, ০৬:৩৫ পিএম

ঘুষের মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হলো ডিআইজি মিজানকে
ঘুষের মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হলো ডিআইজি মিজানকে

কারাগারে থাকা পুলিশের উপমহাপরিদর্শক (ডিআইজি) মিজানুর রহমানকে (সাময়িক বরখাস্ত) চল্লিশ লাখ টাকা ঘুষ দেওয়ার মামলায় গ্রেপ্তার দেখানোর আবেদন মঞ্জুর করেছেন আদালত। আজ রোববার ঢাকা মহানগর জ্যেষ্ঠ বিশেষ জজ কেএম ইমরুল কায়েশ দুদকের এ আবেদন মঞ্জুর করেন।

গত ১৬ জুলাই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা দুদক পরিচালক শেখ মো. ফানাফিল্যা এ আবেদন করলে ২১ জুলাই শুনানির দিন ঠিক হয়।

শুনানিকালে ডিআইজি মিজানকে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়। তিনি গত ২ জুলাই থেকে কারাগারে রয়েছেন।

গ্রেপ্তার দেখানোর আবেদনে বলা হয়, আসামি ডিআইজি মিজান বর্তমানে জ্ঞাত আয় বর্হিভূত সম্পদ অর্জন ও অর্থপাচারের একটি মামলায় কারাগারে রয়েছেন। ওই মামলার অনুসন্ধানকারী কর্মকর্তা ছিলেন দুদক পরিচালক (সাময়িক বরখাস্ত) খন্দকার এনামুল বাছির। ডিআইজি মিজান সরকারী কর্মকর্তা হয়ে নিজের বিরুদ্ধে আনা অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ থেকে অব্যাহতি পাওয়ার আশায় অর্থাৎ অনুসন্ধানের ফলাফল নিজের পক্ষে নেওয়ার অসৎ উদ্দেশে মামলার অপর আসামি এনামুল বাছিরকে অবৈধভাবে প্রভাবিত করার জন্য অবৈধ পন্থায় অর্জিত আয় থেকে ৪০ লাখ টাকা ঘুষ দেন। তারা দণ্ডবিধির ১৬১/১৬৫(ক)/ ১০৯ ও দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) এবং মানিলন্ডারিং প্রতিরোধ আইনের ৪(৩)(৩) ধারার অপরাধ করায় তাদের বিরুদ্ধে গত ১৬ জুলাই দুদকের ঢাকা জেলা কার্যালয় মামলা নম্বর-৪ দায়ের করেন। মামলার আসামি জিআইজি মিজান ঢাকা জেলা কার্যালয় মামলা নম্বর-১ এ বর্তমানে জেল হাজতে থাকায় তাকে এ মামলায় গ্রেপ্তার (শ্যোন অ্যারেষ্ট) দেখানো প্রয়োজন।

আজে দুদকের পক্ষে প্রসিকিউটর মোশাররফ হোসেন কাজল মামলার প্রেক্ষাপট বর্ণনা করে আবেদন মঞ্জুরের পক্ষে শুনানি করেন। অন্যদিকে মিজানের পক্ষে ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতের সাবেক পাবলিক প্রসিকিউটর এহসানুল হক সমাজী ঢাকা মহানগর জ্যেষ্ঠ বিশেষ জজ আদালতের গ্রেপ্তার দেখানোর আবেদন গ্রহণের এখতিয়ার নেই বলে শুনানি করেন।

উভয় পক্ষের শুনানি শেষে বিচারক আসামি পক্ষের আবেদন নামঞ্জুর করে গ্রেপ্তার দেখানোর আবেদন মঞ্জুর করেন।

ঘুষের মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হলো ডিআইজি মিজানকে

প্রতিবেদক নাম: স্টাফ রিপোর্টার: ,

প্রকাশের সময়ঃ ২১ জুলাই ২০১৯, ০৬:৩৫ পিএম

কারাগারে থাকা পুলিশের উপমহাপরিদর্শক (ডিআইজি) মিজানুর রহমানকে (সাময়িক বরখাস্ত) চল্লিশ লাখ টাকা ঘুষ দেওয়ার মামলায় গ্রেপ্তার দেখানোর আবেদন মঞ্জুর করেছেন আদালত। আজ রোববার ঢাকা মহানগর জ্যেষ্ঠ বিশেষ জজ কেএম ইমরুল কায়েশ দুদকের এ আবেদন মঞ্জুর করেন।

গত ১৬ জুলাই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা দুদক পরিচালক শেখ মো. ফানাফিল্যা এ আবেদন করলে ২১ জুলাই শুনানির দিন ঠিক হয়।

শুনানিকালে ডিআইজি মিজানকে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়। তিনি গত ২ জুলাই থেকে কারাগারে রয়েছেন।

গ্রেপ্তার দেখানোর আবেদনে বলা হয়, আসামি ডিআইজি মিজান বর্তমানে জ্ঞাত আয় বর্হিভূত সম্পদ অর্জন ও অর্থপাচারের একটি মামলায় কারাগারে রয়েছেন। ওই মামলার অনুসন্ধানকারী কর্মকর্তা ছিলেন দুদক পরিচালক (সাময়িক বরখাস্ত) খন্দকার এনামুল বাছির। ডিআইজি মিজান সরকারী কর্মকর্তা হয়ে নিজের বিরুদ্ধে আনা অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ থেকে অব্যাহতি পাওয়ার আশায় অর্থাৎ অনুসন্ধানের ফলাফল নিজের পক্ষে নেওয়ার অসৎ উদ্দেশে মামলার অপর আসামি এনামুল বাছিরকে অবৈধভাবে প্রভাবিত করার জন্য অবৈধ পন্থায় অর্জিত আয় থেকে ৪০ লাখ টাকা ঘুষ দেন। তারা দণ্ডবিধির ১৬১/১৬৫(ক)/ ১০৯ ও দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) এবং মানিলন্ডারিং প্রতিরোধ আইনের ৪(৩)(৩) ধারার অপরাধ করায় তাদের বিরুদ্ধে গত ১৬ জুলাই দুদকের ঢাকা জেলা কার্যালয় মামলা নম্বর-৪ দায়ের করেন। মামলার আসামি জিআইজি মিজান ঢাকা জেলা কার্যালয় মামলা নম্বর-১ এ বর্তমানে জেল হাজতে থাকায় তাকে এ মামলায় গ্রেপ্তার (শ্যোন অ্যারেষ্ট) দেখানো প্রয়োজন।

আজে দুদকের পক্ষে প্রসিকিউটর মোশাররফ হোসেন কাজল মামলার প্রেক্ষাপট বর্ণনা করে আবেদন মঞ্জুরের পক্ষে শুনানি করেন। অন্যদিকে মিজানের পক্ষে ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতের সাবেক পাবলিক প্রসিকিউটর এহসানুল হক সমাজী ঢাকা মহানগর জ্যেষ্ঠ বিশেষ জজ আদালতের গ্রেপ্তার দেখানোর আবেদন গ্রহণের এখতিয়ার নেই বলে শুনানি করেন।

উভয় পক্ষের শুনানি শেষে বিচারক আসামি পক্ষের আবেদন নামঞ্জুর করে গ্রেপ্তার দেখানোর আবেদন মঞ্জুর করেন।