১৮, আগস্ট, ২০১৯, রোববার | | ১৬ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০


এবার হজে ৮০০ কোটির ওপরে আয় করবে বিমান

রিপোর্টার নামঃ স্টাফ রিপোর্টার।। প্রতিদিনের কাগজ' | আপডেট: ১৭ জুলাই ২০১৯, ১১:৪২ পিএম

এবার হজে ৮০০ কোটির ওপরে আয় করবে বিমান
এবার হজে ৮০০ কোটির ওপরে আয় করবে বিমান

চলতি বছরের হজে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স মোট ৬৩ হাজার ৫৯৯ জন হজযাত্রী বহন করবে। এ থেকে প্রায় ৮১৪ কোটি টাকার ওপরে আয়ের প্রত্যাশা করছে রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থাটি। প্রত্যাশা পূরণ হলে হজ আয়ে এ বছর অতীতের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে যাবে।

এ বছর হজযাত্রীদের টিকিটের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ১ লাখ ২৮ হাজার টাকা। এ হিসাবে এবার ৮১৪ কোটি ৬৭ লাখ টাকার ওপরে আয়ের প্রত্যাশা করছে বিমান।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিমানের মুখপাত্র তাহেরা খন্দকার।

তিনি জানান, হজ ফ্লাইট শুরুর আগে এবারই প্রথম বিমান অগ্রিম ভিত্তিতে টিকিট বিক্রির টাকা আদায় করায় লাভের পরিমাণ বেড়ে যায়।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের মার্কেটিং অ্যান্ড সেলস বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক মাহবুব জাহান খান বলেন, ‘এ বছর হজ ফ্লাইটে টিকিট বিক্রি থেকে আসা আয় ছাড়াও আপগ্রেডেশন, ডেট পরিবর্তন এবং শর্ট প্যাকেজ থেকে ৪ কোটি টাকার ওপরে আয় হতে পারে। সব মিলে এ বছর হজের আয় অতীতের রেকর্ড ছাড়িয়ে যাবে।’

রাষ্ট্রীয় পতাকাবাহী সংস্থা বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের চলতি মৌসুমের প্রথম হজ ফ্লাইট বিজি-৩০০১ ৪ জুলাই সকাল সোয়া ৭টায় ৪১৯ হজযাত্রী নিয়ে জেদ্দার উদ্দেশে ঢাকা ছেড়ে যায়। চট্টগ্রাম এবং সিলেট থেকেও এ বছর যথাক্রমে ১৯টি ও ৩টি হজ ফ্লাইট পরিচালনা করা হচ্ছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, বাংলাদেশ থেকে এ বছর প্রায় ১ লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন হজযাত্রী পবিত্র হজ পালনে সৌদি আরব যাবেন। এ বছর হজ ফ্লাইট ও শিডিউল ফ্লাইট বিমানে যাবেন ৬৩ হাজার ৫৯৯ জন হজযাত্রী। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় যাবেন ৭ হাজার ১৯৮। অবশিষ্ট ৫৬ হাজার ৪০১ হজযাত্রী যাবেন বেসরকারি ব্যবস্থাপনায়।

সূত্র আরও জানায়, এ বছর হজযাত্রীদের ঢাকা-জেদ্দা-ঢাকা রুটে পরিবহনের জন্য বিমানের চারটি নিজস্ব বোয়িং ৭৭৭-৩০০ইআর উড়োজাহাজ ছাড়াও স্বল্পমেয়াদি লিজে আনা হয়েছে দুটি এয়ার বাস। ঢাকা-জেদ্দা-ঢাকা রুটে চলাচলকারী বিমানের নিয়মিত শিডিউল ফ্লাইটেও হজযাত্রীরা জেদ্দায় যাচ্ছেন। ঢাকা থেকে জেদ্দা প্রতি ফ্লাইটের উড্ডয়নকাল আনুমানিক ৭ ঘণ্টা।

দুই মাসব্যাপী হজ ফ্লাইট পরিচালনায় শিডিউল ফ্লাইটসহ ৩৬৫টি ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে, যার মধ্যে ৩০৪ ডেডিকেটেড এবং ৬১টি শিডিউল ফ্লাইট। ৪ জুলাই থেকে ৫ আগস্ট পর্যন্ত ‘প্রি-হজ’-এ মোট ১৮৯টি ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে।

এবার হজে ৮০০ কোটির ওপরে আয় করবে বিমান

প্রতিবেদক নাম: স্টাফ রিপোর্টার।। প্রতিদিনের কাগজ' ,

প্রকাশের সময়ঃ ১৭ জুলাই ২০১৯, ১১:৪২ পিএম

চলতি বছরের হজে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স মোট ৬৩ হাজার ৫৯৯ জন হজযাত্রী বহন করবে। এ থেকে প্রায় ৮১৪ কোটি টাকার ওপরে আয়ের প্রত্যাশা করছে রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থাটি। প্রত্যাশা পূরণ হলে হজ আয়ে এ বছর অতীতের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে যাবে।

এ বছর হজযাত্রীদের টিকিটের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ১ লাখ ২৮ হাজার টাকা। এ হিসাবে এবার ৮১৪ কোটি ৬৭ লাখ টাকার ওপরে আয়ের প্রত্যাশা করছে বিমান।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিমানের মুখপাত্র তাহেরা খন্দকার।

তিনি জানান, হজ ফ্লাইট শুরুর আগে এবারই প্রথম বিমান অগ্রিম ভিত্তিতে টিকিট বিক্রির টাকা আদায় করায় লাভের পরিমাণ বেড়ে যায়।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের মার্কেটিং অ্যান্ড সেলস বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক মাহবুব জাহান খান বলেন, ‘এ বছর হজ ফ্লাইটে টিকিট বিক্রি থেকে আসা আয় ছাড়াও আপগ্রেডেশন, ডেট পরিবর্তন এবং শর্ট প্যাকেজ থেকে ৪ কোটি টাকার ওপরে আয় হতে পারে। সব মিলে এ বছর হজের আয় অতীতের রেকর্ড ছাড়িয়ে যাবে।’

রাষ্ট্রীয় পতাকাবাহী সংস্থা বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের চলতি মৌসুমের প্রথম হজ ফ্লাইট বিজি-৩০০১ ৪ জুলাই সকাল সোয়া ৭টায় ৪১৯ হজযাত্রী নিয়ে জেদ্দার উদ্দেশে ঢাকা ছেড়ে যায়। চট্টগ্রাম এবং সিলেট থেকেও এ বছর যথাক্রমে ১৯টি ও ৩টি হজ ফ্লাইট পরিচালনা করা হচ্ছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, বাংলাদেশ থেকে এ বছর প্রায় ১ লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন হজযাত্রী পবিত্র হজ পালনে সৌদি আরব যাবেন। এ বছর হজ ফ্লাইট ও শিডিউল ফ্লাইট বিমানে যাবেন ৬৩ হাজার ৫৯৯ জন হজযাত্রী। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় যাবেন ৭ হাজার ১৯৮। অবশিষ্ট ৫৬ হাজার ৪০১ হজযাত্রী যাবেন বেসরকারি ব্যবস্থাপনায়।

সূত্র আরও জানায়, এ বছর হজযাত্রীদের ঢাকা-জেদ্দা-ঢাকা রুটে পরিবহনের জন্য বিমানের চারটি নিজস্ব বোয়িং ৭৭৭-৩০০ইআর উড়োজাহাজ ছাড়াও স্বল্পমেয়াদি লিজে আনা হয়েছে দুটি এয়ার বাস। ঢাকা-জেদ্দা-ঢাকা রুটে চলাচলকারী বিমানের নিয়মিত শিডিউল ফ্লাইটেও হজযাত্রীরা জেদ্দায় যাচ্ছেন। ঢাকা থেকে জেদ্দা প্রতি ফ্লাইটের উড্ডয়নকাল আনুমানিক ৭ ঘণ্টা।

দুই মাসব্যাপী হজ ফ্লাইট পরিচালনায় শিডিউল ফ্লাইটসহ ৩৬৫টি ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে, যার মধ্যে ৩০৪ ডেডিকেটেড এবং ৬১টি শিডিউল ফ্লাইট। ৪ জুলাই থেকে ৫ আগস্ট পর্যন্ত ‘প্রি-হজ’-এ মোট ১৮৯টি ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে।