২২, সেপ্টেম্বর, ২০১৯, রোববার | | ২২ মুহররম ১৪৪১


বিয়ের আসরেই বরকে পেটালেন কনে!

রিপোর্টার নামঃ আন্তর্জাতিক ডেস্ক: | আপডেট: ১৯ মে ২০১৯, ০৭:৩৬ পিএম

বিয়ের আসরেই বরকে পেটালেন কনে!
বিয়ের আসরেই বরকে পেটালেন কনে!

যৌতুক চাওয়ায় বিয়ের আসরেই হবু স্বামীকে বেধরক পিটিয়েছেন এক কনে। শুধু তাই নয়, এ ঘটনার পর বরপক্ষকে গলা ধাক্কা দিয়ে বেরও করে দিয়েছেন তিনি।

সম্প্রতি ভারতের আসাম রাজ্যের রাজধানী গোহাটিতে এ ঘটনাটি ঘটেছে।

এ বিষয়ে স্থানীয়রা জানান, ওই কনের নাম রুমেলা। ছোটবেলা থেকেই তিনি খুব আত্মসম্মানী স্বভাবের ছিলেন। এই বিশেষ গুণটির জন্যই বন্ধু মহলেও যথেষ্ট খ্যাতি রয়েছে তার।

ভারতীয় একটি গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, সন্তোষ নামের ২৮ বছর বয়সী এক যুবকের সঙ্গে স্নাতক পাস রুমেলার বিয়ে ঠিক হয়। সন্তোষ একটি বেসরকারি ইঞ্জিনিয়ারিং ফার্মে কাজ করেন। বিয়ের দিন সকালেই মেয়ের বাবার কাছ থেকে সাত লাখ টাকা যৌতুক চায় ছেলের পরিবার। ছেলের বাবা যৌতুকের টাকা নগদ বুঝিয়ে দেওয়ার জন্য চাপ দেন।

বিষয়টি নিয়ে প্রথমে নিচু স্বরে কথা হলেও পরে ক্রমশ খারাপ ব্যবহার করতে থাকেন বরের পরিবারের লোকজন। টাকা পরিশোধ করা না হলে তারা বিয়ের আসর থেকে বরকে উঠিয়ে বাড়ি ফিরে যাওয়ার হুমকি দেন।

এদিকে বাবার এমন অসহায়ত্ব সহ্য করতে না পেরে রুমেলা ছুটে এসে ছেলের বাবার গালে চড় মারেন এবং গলার মালা খুলে বরকে বেধরক পেটাতে থাকেন। পরে রুমেলা বিয়ে করবেন না জানিয়ে বরপক্ষকে গলা ধাক্কা দিয়ে বাড়ি থেকে বের দেন।

বিয়ের আসরেই বরকে পেটালেন কনে!

প্রতিবেদক নাম: আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ,

প্রকাশের সময়ঃ ১৯ মে ২০১৯, ০৭:৩৬ পিএম

যৌতুক চাওয়ায় বিয়ের আসরেই হবু স্বামীকে বেধরক পিটিয়েছেন এক কনে। শুধু তাই নয়, এ ঘটনার পর বরপক্ষকে গলা ধাক্কা দিয়ে বেরও করে দিয়েছেন তিনি।

সম্প্রতি ভারতের আসাম রাজ্যের রাজধানী গোহাটিতে এ ঘটনাটি ঘটেছে।

এ বিষয়ে স্থানীয়রা জানান, ওই কনের নাম রুমেলা। ছোটবেলা থেকেই তিনি খুব আত্মসম্মানী স্বভাবের ছিলেন। এই বিশেষ গুণটির জন্যই বন্ধু মহলেও যথেষ্ট খ্যাতি রয়েছে তার।

ভারতীয় একটি গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, সন্তোষ নামের ২৮ বছর বয়সী এক যুবকের সঙ্গে স্নাতক পাস রুমেলার বিয়ে ঠিক হয়। সন্তোষ একটি বেসরকারি ইঞ্জিনিয়ারিং ফার্মে কাজ করেন। বিয়ের দিন সকালেই মেয়ের বাবার কাছ থেকে সাত লাখ টাকা যৌতুক চায় ছেলের পরিবার। ছেলের বাবা যৌতুকের টাকা নগদ বুঝিয়ে দেওয়ার জন্য চাপ দেন।

বিষয়টি নিয়ে প্রথমে নিচু স্বরে কথা হলেও পরে ক্রমশ খারাপ ব্যবহার করতে থাকেন বরের পরিবারের লোকজন। টাকা পরিশোধ করা না হলে তারা বিয়ের আসর থেকে বরকে উঠিয়ে বাড়ি ফিরে যাওয়ার হুমকি দেন।

এদিকে বাবার এমন অসহায়ত্ব সহ্য করতে না পেরে রুমেলা ছুটে এসে ছেলের বাবার গালে চড় মারেন এবং গলার মালা খুলে বরকে বেধরক পেটাতে থাকেন। পরে রুমেলা বিয়ে করবেন না জানিয়ে বরপক্ষকে গলা ধাক্কা দিয়ে বাড়ি থেকে বের দেন।