২২, জুলাই, ২০১৯, সোমবার | | ১৯ জ্বিলকদ ১৪৪০


দক্ষ কর্মীদের আকৃষ্ট করতে স্থায়ী বসবাসের সুবিধাসহ আকামা চালু সৌদিতে

রিপোর্টার নামঃ আন্তর্জাতিক ডেস্ক: | আপডেট: ১৫ মে ২০১৯, ০২:৪৩ পিএম

দক্ষ কর্মীদের আকৃষ্ট করতে স্থায়ী বসবাসের সুবিধাসহ আকামা চালু সৌদিতে
দক্ষ কর্মীদের আকৃষ্ট করতে স্থায়ী বসবাসের সুবিধাসহ আকামা চালু সৌদিতে

সৌদি গ্যাজেট জানায়, মঙ্গলবার রাতে জেদ্দায় আল-সালাম প্রাসাদে সৌদি বাদশাহ সালমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার সাপ্তাহিক বৈঠকে বিশেষ ইকামা আইনটি অনুমোদন পায়। গত বুধবার সৌদি শূরা কাউন্সিল দক্ষ কর্মীদের আকৃষ্ট করতে ঐতিহাসিক বিশেষ আকামা আইনের খসড়া অনুমোদন করে।

এই আইন অনুযায়ি বিশেষ ইকামাধারীরা সৌদি আরবে স্থায়ীভাবে বসবাসের অনুমতি পাবেন, পাশাপাশি ব্যবসা করা এবং সম্পত্তির মালিক হওয়ারও সুযোগ পাবেন। একইসঙ্গে তাদের আত্মীয়রা ভিজিট ভিসা পাবে ও গৃহকর্মীও নিয়োগ দিতে পারবেন। অবশ্য তাদের এই আকামার জন্যে বিশেষ ফি দিতে হবে।

এ আকামা দুই ধরণের হবে, একটির মাধ্যমে অনির্দিষ্টকালের জন্যে সৌদি আরবে থাকার সুবিধা পাওয়া যাবে, আরেকটির মাধ্যমে এক বছরের থাকার সুবিধা পাওয়া যাবে যা প্রতিবছর নবায়ন করতে হবে।

তেলসমৃদ্ধ দেশ সৌদিতে বর্তমানে স্পন্সরশিপ ভিত্তিক যে ব্যবস্থা চালু আছে তাতে একজন সৌদি চাকরিদাতা স্পন্সর হতে রাজি হলে তবেই সৌদি আরবে ওয়ার্ক পারমিট নিয়ে বসবাসের সুযোগ হয়।

দক্ষ কর্মীদের আকৃষ্ট করতে স্থায়ী বসবাসের সুবিধাসহ আকামা চালু সৌদিতে

প্রতিবেদক নাম: আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ,

প্রকাশের সময়ঃ ১৫ মে ২০১৯, ০২:৪৩ পিএম

সৌদি গ্যাজেট জানায়, মঙ্গলবার রাতে জেদ্দায় আল-সালাম প্রাসাদে সৌদি বাদশাহ সালমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার সাপ্তাহিক বৈঠকে বিশেষ ইকামা আইনটি অনুমোদন পায়। গত বুধবার সৌদি শূরা কাউন্সিল দক্ষ কর্মীদের আকৃষ্ট করতে ঐতিহাসিক বিশেষ আকামা আইনের খসড়া অনুমোদন করে।

এই আইন অনুযায়ি বিশেষ ইকামাধারীরা সৌদি আরবে স্থায়ীভাবে বসবাসের অনুমতি পাবেন, পাশাপাশি ব্যবসা করা এবং সম্পত্তির মালিক হওয়ারও সুযোগ পাবেন। একইসঙ্গে তাদের আত্মীয়রা ভিজিট ভিসা পাবে ও গৃহকর্মীও নিয়োগ দিতে পারবেন। অবশ্য তাদের এই আকামার জন্যে বিশেষ ফি দিতে হবে।

এ আকামা দুই ধরণের হবে, একটির মাধ্যমে অনির্দিষ্টকালের জন্যে সৌদি আরবে থাকার সুবিধা পাওয়া যাবে, আরেকটির মাধ্যমে এক বছরের থাকার সুবিধা পাওয়া যাবে যা প্রতিবছর নবায়ন করতে হবে।

তেলসমৃদ্ধ দেশ সৌদিতে বর্তমানে স্পন্সরশিপ ভিত্তিক যে ব্যবস্থা চালু আছে তাতে একজন সৌদি চাকরিদাতা স্পন্সর হতে রাজি হলে তবেই সৌদি আরবে ওয়ার্ক পারমিট নিয়ে বসবাসের সুযোগ হয়।