২১, জুলাই, ২০১৯, রোববার | | ১৮ জ্বিলকদ ১৪৪০


ভালো চিকিৎসক হতে হলে প্রথমে ভালো মানুষ হতে হবে: ভুটানের প্রধানমন্ত্রী

রিপোর্টার নামঃ স্টাফ রির্পোটার | আপডেট: ১৪ এপ্রিল ২০১৯, ০৭:১৪ পিএম

ভালো চিকিৎসক হতে হলে প্রথমে ভালো মানুষ হতে হবে: ভুটানের প্রধানমন্ত্রী
ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ অডিটরিয়ামে বিশেষ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে ভুটানের প্রধানমন্ত্রী ডা. লোটে শেরিং।

ভুটানের প্রধানমন্ত্রী ও ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের প্রাক্তন ছাত্র ডা. লোটে শেরিং বন্ধু সহপাঠী, শিক্ষক ও অতিথিদের শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেন, ‌‘একজন ভালো চিকিৎসক হতে হলে প্রথমে তাকে ভালো মানুষ হতে হবে। আমি রাজনীতিতে এসেছি আমার পেশাকে ছেড়ে নয়। ২০১৩ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত আমি চাকরি না করে, বিদেশে না গিয়ে আমি ভুটানের মানুষকে নিয়ে ভেবেছি। তাদেরকে নিয়ে কাজ করেছি। আজ আমি সে দেশের প্রধানমন্ত্রী।’   

আজ রবিবার ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ অডিটরিয়ামে আয়োজিত বিশেষ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের স্মৃতিচারণ করে বলেন, ‘১৯৯১ থেকে ১৯৯৯ সাল পর্যন্ত আমি ও আমার সহপাঠী বর্তমান ভুটানের স্বাস্থ্য মন্ত্রী ডা. টান্ডি দরজিসহ ময়মনসিংহ শহরের বাঘমারা মেডিকেল কলেজ ছাত্রাবাসে ২০ নম্বর কক্ষে থেকেছি। এখনো একসঙ্গে আমরা রাজনীতি করছি। এ দীর্ঘ সময়ে আমাদের মধ্যে কোনোদিন কোনো মনোমালিন্য হয়নি। আজকে তার কারণেই আমি প্রধানমন্ত্রী, তিনিই আমাকে প্রধানমন্ত্রী বানিয়েছেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘সব ভোদাভেদ ভুলে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। ছাত্রাবস্থায় বিভিন্ন সময়ের ঘটনা নিয়ে অনেকের নাম উল্লেখ করে ডা. লোটে শেরিং আবেগ আপ্লুত হয়ে পড়েন। শিক্ষা জীবনে তিনি একবার অসুস্থ হয়ে পড়ার কথাও স্মৃতি চারণ করেন।’ তিনি রবিবার সকালে ঢাকা থেকে হেলিকপ্টারযোগে ময়মনসিংহে পৌঁছলে নিজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ শিক্ষার্থীরা তাকে স্বাগত জানান। তার সহপাঠীরা ফুলের শুভেচ্ছায় সিক্ত করেন। পরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সার্জারি ওয়ার্ড পরিদর্শন করেন।

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর ডা. আনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে ত্রাণ ও দুর্যোগ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান, স্বাস্থ্য সচিব জি এম সালেহ উদ্দিনসহ অন্যরা বক্তব্য রাখেন। এ সময় ভুটানের পররাষ্ট্র মন্ত্রী ডা. টান্ডি দরজি, স্বাস্থ্য মন্ত্রী লায়োনপু দিহেন ওয়াংমু, প্রধানমন্ত্রী সহধর্মিনী ডা. উগেন ডেমা, জেলা প্রশাসক ড. সুভাষ চন্দ্র বিশ্বাস, পুলিশ সুপার শাহ আবিদ হোসেন, ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. লক্ষ্মী নারায়ন মজুমদার, ময়মনসিংহ বিএমএ সভাপতি ডা. মতিউর রহমান ভুইয়াসহ সংশ্লিষ্ঠ প্রশাসন ও বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

প্রতিদিনের কাগজ/এব রানা

ভালো চিকিৎসক হতে হলে প্রথমে ভালো মানুষ হতে হবে: ভুটানের

প্রতিবেদক নাম: স্টাফ রির্পোটার ,

প্রকাশের সময়ঃ ১৪ এপ্রিল ২০১৯, ০৭:১৪ পিএম

ভুটানের প্রধানমন্ত্রী ও ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের প্রাক্তন ছাত্র ডা. লোটে শেরিং বন্ধু সহপাঠী, শিক্ষক ও অতিথিদের শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেন, ‌‘একজন ভালো চিকিৎসক হতে হলে প্রথমে তাকে ভালো মানুষ হতে হবে। আমি রাজনীতিতে এসেছি আমার পেশাকে ছেড়ে নয়। ২০১৩ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত আমি চাকরি না করে, বিদেশে না গিয়ে আমি ভুটানের মানুষকে নিয়ে ভেবেছি। তাদেরকে নিয়ে কাজ করেছি। আজ আমি সে দেশের প্রধানমন্ত্রী।’   

আজ রবিবার ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ অডিটরিয়ামে আয়োজিত বিশেষ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের স্মৃতিচারণ করে বলেন, ‘১৯৯১ থেকে ১৯৯৯ সাল পর্যন্ত আমি ও আমার সহপাঠী বর্তমান ভুটানের স্বাস্থ্য মন্ত্রী ডা. টান্ডি দরজিসহ ময়মনসিংহ শহরের বাঘমারা মেডিকেল কলেজ ছাত্রাবাসে ২০ নম্বর কক্ষে থেকেছি। এখনো একসঙ্গে আমরা রাজনীতি করছি। এ দীর্ঘ সময়ে আমাদের মধ্যে কোনোদিন কোনো মনোমালিন্য হয়নি। আজকে তার কারণেই আমি প্রধানমন্ত্রী, তিনিই আমাকে প্রধানমন্ত্রী বানিয়েছেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘সব ভোদাভেদ ভুলে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। ছাত্রাবস্থায় বিভিন্ন সময়ের ঘটনা নিয়ে অনেকের নাম উল্লেখ করে ডা. লোটে শেরিং আবেগ আপ্লুত হয়ে পড়েন। শিক্ষা জীবনে তিনি একবার অসুস্থ হয়ে পড়ার কথাও স্মৃতি চারণ করেন।’ তিনি রবিবার সকালে ঢাকা থেকে হেলিকপ্টারযোগে ময়মনসিংহে পৌঁছলে নিজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ শিক্ষার্থীরা তাকে স্বাগত জানান। তার সহপাঠীরা ফুলের শুভেচ্ছায় সিক্ত করেন। পরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সার্জারি ওয়ার্ড পরিদর্শন করেন।

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর ডা. আনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে ত্রাণ ও দুর্যোগ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান, স্বাস্থ্য সচিব জি এম সালেহ উদ্দিনসহ অন্যরা বক্তব্য রাখেন। এ সময় ভুটানের পররাষ্ট্র মন্ত্রী ডা. টান্ডি দরজি, স্বাস্থ্য মন্ত্রী লায়োনপু দিহেন ওয়াংমু, প্রধানমন্ত্রী সহধর্মিনী ডা. উগেন ডেমা, জেলা প্রশাসক ড. সুভাষ চন্দ্র বিশ্বাস, পুলিশ সুপার শাহ আবিদ হোসেন, ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. লক্ষ্মী নারায়ন মজুমদার, ময়মনসিংহ বিএমএ সভাপতি ডা. মতিউর রহমান ভুইয়াসহ সংশ্লিষ্ঠ প্রশাসন ও বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

প্রতিদিনের কাগজ/এব রানা