২৫, এপ্রিল, ২০১৯, বৃহস্পতিবার | | ১৯ শা'বান ১৪৪০

ইলিশের বাজার দেখে চোখ লাল, তবুও কাড়াকাড়ি

রিপোর্টার নামঃ স্টাফ রিপোর্টার: | আপডেট: ১৩ এপ্রিল ২০১৯, ০১:০৬ পিএম

ইলিশের বাজার দেখে চোখ লাল, তবুও কাড়াকাড়ি
ইলিশের বাজার দেখে চোখ লাল, তবুও কাড়াকাড়ি

রাত পোহালেই বাঙালির প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখ। আর পহেলা বৈশাখ মানেই সকালে পান্তা ভাতের সঙ্গে ইলিশ। তাই মাছের রাজা ইলিশ কিনতে শেষ মুহূর্তে বাজারে ঢুঁ মারছে রাজধানীবাসী। স্বাদ ও সাধ্যের মধ্যে পরিবারের জন্য ইলিশ কেনা চাই-ই চাই। পহেলা বৈশাখকে কেন্দ্র করে শেষ মুহূর্তে বাজারে ইলিশ নিয়ে কাড়াকাড়ি পড়েছে। বাজারে ইলিশের চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় দামও বেড়েছে দিগুণের বেশি।

শনিবার (১৩ এপ্রিল) সকালে রাজধানীর মালিবাগ, মুগদা, শান্তিনগর বাজার ঘুরে দেখা যায়, ইলিশের দোকানগুলোতে ক্রেতা সমাগম অন্য যেকানও দিনের তুলনায় অনেক বেশি। ক্রেতারা পছন্দের ইলিশ পরখ করে দেখছেন। দরদাম নিয়ে বিক্রেতার সঙ্গে দু-এক কথা শেষ করে মোটা টাকায় ইলিশ নিয়ে বাড়ি ফিরছেন নগরবাসী। 

মাছ ব্যবসায়ীরা জানান, বাজারে এক কেজির কাছাকাছি ওজনের ইলিশ হালি প্রতি বিক্রি হচ্ছে ৭০০০-৮০০০ টাকা, গত সপ্তাহের আগে ছিলো ৩৫০০-৪০০০ টাকা; ৭০০-৮০০ গ্রাম ওজনের ইলিশ হালি প্রতি বিক্রি হচ্ছে ৫০০০-৬০০০ টাকা। যা গত সপ্তাহে ছিলো ৩০০০-৩৫০০ টাকা।

এছাড়া ৬০০-৭০০ গ্রাম ওজনের ইলিশের হালি ৩২০০-৪০০০ টাকায় এবং ছোট সাইজের ৩০০-৪০০ গ্রাম ওজনের ইলিশের হালি ১৬০০-২০০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

বড় সাইজের দেড় কেজির কাছাকাছি ওজনের ইলিশ প্রতি পিস বিক্রি হচ্ছে ৩৫০০-৪০০০ টাকা যা গত সপ্তাহে ছিলো ২৪০০-২৫০০ টাকা; সোয়া ১ কেজি মতো ওজনের ইলিশ প্রতি পিস বিক্রি হচ্ছে ২৫০০-৩০০০ টাকা, যা গত সপ্তাহে ছিলো ১৫০০-২০০০ টাকা।

মালিবাগ বাজারের মাছ ব্যবসায়ী সালেক মিয়া বলেন, ‘বৈশাখকে কেন্দ্র করে বাজারে ইলিশের চাহিদা বেড়ে যায় কয়েকগুণ। চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় দামও বাড়ে। কারণ এসময় আড়তদার ও পাইকারি ব্যবসায়ীরা মাছের দাম বাড়িয়ে দেন। আমরা তাদের কাছ থেকে বেশি দামে মাছ কিনে আনি। তাই আমাদেরও বেশি দামেই বিক্রি করতে হয়।’

শান্তিনগর বাজারে ইলিশের দোকানে এক বিক্রেতার সঙ্গে দরদাম করছেন বেসরকারি ব্যাংক কর্মকর্তা নাসির আহমেদ। কথা হয় তার সঙ্গে, তিনি বলেন, ‘প্রতি শনিবার বাজার করি। গত সপ্তাহে ইলিশ কিনবো বলে বলে আর কেনা হয়নি। আজ বাসা থেকে নিয়ত করে আসি ইলিশ কিনব, কিন্তু সকাল থেকে বাজারে ঘুরছি। দাম শুনে মাথা গরম হয়ে যাচ্ছে। মাত্র কয়েকদিনের ব্যবধানে ইলিশের দাম বেড়েছে ডাবলেরও বেশি।’

এদিকে অতিরিক্ত দামের কারণে সীমিত আয়ের মানুষদের অনেককেই শেষ পর্যন্ত সাধের ইলিশ না কিনেই বাসার পথে ফিরতে দেখা গেছে। তাদের অনেকেরই অভিযোগ এবং আক্ষেপ- পহেলা বৈশাখ এলেই ব্যবসায়ীরা ইচ্ছেকৃতভাবে ইলিশের দাম কয়েকগুণ বাড়িয়ে দেয়। টাকাওয়ালাদের জন্য তো কোনও সমস্যা না, কিন্তু সাধারণ মানুষ তো চাইলেও বছরের এই একটি দিন পান্তা ভাতের সঙ্গে ইলিশের ঘ্রাণ নিতে পারে না।