১৯, মে, ২০১৯, রোববার | | ১৪ রমজান ১৪৪০

রাবির শিক্ষার্থী সারোয়ারের অর্থের অভাবে চিকিৎসা বন্ধ

রিপোর্টার নামঃ নাজিম হাসান, রাজশাহী প্রতিনিধি: | আপডেট: ১৪ মার্চ ২০১৯, ০৮:২৭ পিএম

রাবির শিক্ষার্থী সারোয়ারের অর্থের অভাবে চিকিৎসা বন্ধ
রাবির শিক্ষার্থী সারোয়ারের অর্থের অভাবে চিকিৎসা বন্ধ

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সারোয়ারের দুটি কিডনিই নষ্ট। তিনবছর আগে রোগটি ধরা পড়লেও অর্থাভাবে চিকিৎসা সম্পন্ন হয়নি তার। আর্থিক অবস্থা ভাল না হওয়ায় পরিবারের পক্ষে তার চিকিৎসা করা সম্ভব হয়নি।রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের চতুর্থ বর্ষের (শিক্ষাবর্ষ ২০১৫-১৬) শিক্ষার্থী।

তার বাড়ি নওগাঁ জেলার বদলগাছী উপজেলায়। সে বিশ্ববিদ্যালয়ের শের-ই-বাংলা হলের আবাসিক শিক্ষার্থী। বাবা নেই, মধ্যবিত্ত পরিবারে ছয় ভাই-বোনের মধ্যে দ্বিতীয় সারোয়ার। চিকিৎসকেরা প্রাথমিকভাবে ধারণা করছেন, সারোয়ারের চিকিৎসায় ১২ লাখ টাকা প্রয়োজন। বর্তমানে সারোয়ারের অবস্থা খুবই আশঙ্কাজনক। এমতাবস্থায় তার চিকিৎসার জন্য প্রয়োজন ডায়ালাইসিস অথবা কিডনি প্রতিস্থাপন।

কিন্তু চিকিৎসার প্রয়োজনীয় অর্থ পরিবারের বহন করা সম্ভব নয়। সারোয়ারের স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে কিডনি প্রতিস্থাপন খুব জরুরি। কেবল কিডনি প্রতিস্থাপনের মাধ্যমে সে স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে পারবে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকেরা। তার এই স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে দেশের দয়াশীল এবং বিত্তবানদের সাহায্যের আবেদন জানিয়েছে তার পরিবার এবং বন্ধুমহল। সারোয়ারকে সাহায্য পাঠানো ঠিকানা-০১৯৩০৯১৯২৬৭ (ব্যক্তিগত বিকাশ নম্বর)।